Omicron Variant: ক্রমেই গাঢ় হচ্ছে ‘ওমিক্রন’ আতঙ্ক, রাজ্যগুলিকে গভীর নিয়ন্ত্রণ ও নজরদারি প্রয়োগের নির্দেশ কেন্দ্রের

শনিবার পর্যালোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, "নতুন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে আমরা সতর্ক রয়েছি। নিয়ন্ত্রণের দিকে মনোনিবেশ করে এবং দ্বিতীয় ডোজ কভারেজ বর্ধিত করা নিশ্চিত করা উচিত। মানুষকে সামাজিক দূরত্ব অনুসরণ করা এবং মাস্ক পরার জন্য অনুরোধ করব।"

0
389

নয়াদিল্লি: করোনার নতুন স্ট্রেন ‘ওমিক্রন’-ই হল বর্তমানে বিশ্বের কাছে উদ্বেগের কারন। দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট বি.১.১.৫২৯-এর খোঁজ মিলেছে। এই ভ্যারিয়েন্টের নামই বিশ্ব সংস্থা দিয়েছে ওমিক্রন (Omicron)। হু-র প্রধান বিজ্ঞানী সৌম্য স্বামীনাথন(Soumya Swaminathan) চিন্তা বাড়িয়ে বলেছেন, ‘ডেল্টার থেকেও বেশি সংক্রামক হতে পারে ওমিক্রন’। তাই নতুন করে বিশ্ব জুড়ে বেড়েছে চিন্তা। ভারতও এই বিষয় নিয়ে আগে থেকেই সতর্ক হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণ রবিবার সমস্ত রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলকে টিকা দেওয়ার কভারেজ বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছে। সেই সঙ্গে নিবিড় নিয়ন্ত্রণ এবং সক্রিয় নজরদারি ব্যবস্থা প্রয়োগের নির্দেশ দিয়েছে রাজ্যগুলিকে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নতুন করে চিন্তা বৃদ্ধিকরা পরিস্থিতি নিয়ে শনিবার একটি পর্যালোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেছিলেন। সেখানেই উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্যকর্তা ও সরকারি আধকারিকরা। দক্ষিণ আফ্রিকায় পাওয়া এই নতুন ভ্যারিয়েন্ট প্রসঙ্গে এবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক সকল রাজ্যকে আগাম সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছে। বিশেষ গুরুত্ব দেওয়ার কথা আরও বলা হয়েছে কারণ আগামী মাস থেকেই ভারতে পুনরায় বিদেশী বিমান পরিষেবা চালু হবে। কারনা আগের মত যাতে আর মারাত্মক আঁকার না নিতে পারে তার জন্যই এই সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়ার কথা রাজ্যগুলিকে জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন- Fraud case: ফের লক্ষাধিক টাকার প্রতারণা, গ্রেফতার চক্রের তিন মূলপাণ্ডা

উল্লেখ্য, শনিবার পর্যালোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, “নতুন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে আমরা সতর্ক রয়েছি। নিয়ন্ত্রণের দিকে মনোনিবেশ করে এবং দ্বিতীয় ডোজ কভারেজ বর্ধিত করা নিশ্চিত করা উচিত। মানুষকে সামাজিক দূরত্ব অনুসরণ করা এবং মাস্ক পরার জন্য অনুরোধ করব।” প্রধানমন্ত্রী সমস্ত আন্তর্জাতিক আগমনের নিরীক্ষণের প্রয়োজনীয়তার কথাও তুলে ধরেন এবং কর্মকর্তাদের আন্তর্জাতিক ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞাগুলি সহজ করার পরিকল্পনা পর্যালোচনা করতে নির্দেশনা দিয়েছেন। তবে বিদ্যমান COVID-19 ভ্যাকসিনগুলি Omicron ভেরিয়েন্টের বিরুদ্ধে কার্যকর হবে কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়। এটাই একটা বড় চিন্তার কারণ।

আরও পড়ুন- Ladakh standoff: LAC বরাবর নিজেদের ঘাঁটি শক্ত করছে চিনা সেনা, লাদাখ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ ভারতের 

‘ওমিক্রন’ যাকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দ্বারা “উদ্বেগজনক স্ট্রেন” হিসাবে অভিহিত করা হয়েছে। এবং এটি রোগের পূর্ববর্তী রূপগুলির তুলনায় সম্ভাব্যভাবে বেশি সংক্রামক বলেই জানাচ্ছে হু। বলা ভালো, ওমিক্রন নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বিজ্ঞানী সৌম্য স্বামীনাথন বলেছেন, “করোনার আগের রূপগুলির সঙ্গে এই ভ্যারিয়েন্টের তুলনা করা উচিত নয়। নতুন ভ্যারিয়েন্টের চরিত্র বোঝার জন্য আরও গবেষণার প্রয়োজন। আপাতত টিকাকরণের উপরই জোর দেওয়া উচিত। এছাড়াও জনস্বাস্থ্যবিধিগুলিও মেনে চলা প্রয়োজন।”