“প্রতিটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে…” বিজেপি সরকারের ৯ বছর পূর্তিতে বিশেষ টুইট প্রধানমন্ত্রী মোদীর

0
37

নয়াদিল্লি: আজ ৩০ মে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন এনডিএ সরকারের নয় বছর পূর্ণ হয়েছে। নিঃসন্দেহে বিজেপির কাছে এটা বড় একটা মাইলফলক। নয় বছর ধরে দেশের সেবার ক্ষেত্রে বড় অর্জন নিয়ে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।  জানিয়েছেন গত ৯ বছর দেশের মানুষের জন্য নেওয়া প্রতিটি সিদ্ধান্তের পিছনে ঠিক কোন উদ্দেশ্য  ছিল।

 কেন্দ্রে বিজেপি সরকাররে  ৯ বছরের কাজকে  ৯ বছরের সেবা বলে দাবি করে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, গত নয় বছরে নেওয়া প্রতিটি সিদ্ধান্তের উদ্দেশ্য ছিল “মানুষের জীবনকে উন্নত করা”। মোদী টুইট করে লিখেছেন,  “আজ, যখন আমরা জাতির সেবায় ৯ বছর পূর্ণ করছি, আমি নম্রতা এবং কৃতজ্ঞতায় পরিপূর্ণ। গৃহীত প্রতিটি সিদ্ধান্ত, গৃহীত প্রতিটি পদক্ষেপ, মানুষের জীবনকে উন্নত করার ইচ্ছা দ্বারা পরিচালিত হয়েছে। উন্নত ভারত গড়তে আমরা আরও কঠোর পরিশ্রম করে যাব।#9YearsOfSeva” । এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখা ভাল সামনের বছর অর্থাৎ ২০২৪ সালে রয়েছে লোকসভা নির্বাচন। হাতে সময় কম তাই এক মুহূর্ত নষ্ট করতে চাইছে না গেরুয়া শিবির। ঠিক এই কারণে বিজেপি আজ থেকে   দেশ জুড়ে একটি বিশাল মাসব্যাপী “বিশেষ যোগাযোগ প্রচার”-এর পরিকল্পনা করেছে।

- Advertisement -

৯ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে দলটি এক বিবৃতিতে বলেছে যে দেশটি গত নয় বছরে “দেশ প্রথম” মন্ত্রের সঙ্গে প্রতিটি ক্ষেত্রে “অভূতপূর্ব” উন্নয়ন লক্ষ্য করেছে। সরকারের সর্বাত্মক উন্নয়নের কারণে সারা বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় অর্থনীতিবিদ এবং বিশ্লেষকরা মনে করেন যে “২১ শতক ভারতের অন্তর্গত”।  জানিয়ে রাখা ভাল, নরেন্দ্র মোদী  ২০১৪ সালের ২৬ মে  প্রথমবারের মতো প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন। এর পর তিনি  ২০১৯ সালের ৩০ মে দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য শপথ নেন। আগামী বছর হতে চলেছে বহু প্রতীক্ষিত লোকসভা নির্বাচন। তাতেই বিজেপি তৃতীয়বার  ক্ষমতায় আসার জন্য চেষ্টার ত্রুটি রাখছে না। শুধু তাই নয় বিজেপি নেতারা জোর দিয়ে বলেছেন আগামী নির্বাচনেও নরেন্দ্র মোদী জিতে প্রধানমন্ত্রী হবেন।  বিরোধীরাও ছেড়ে দেওয়ার পাত্র নয়। জোট বেঁধে বিজেপিকে হারানোর পরিকল্পনা করছে। তবে শেষ হাসি কে হাসে সেটাই দেখা কেবল সময়ের অপেক্ষা।