ভারতীয় অর্থনীতি চলতি বছরে কত শতাংশ বাড়বে, প্রত্যাশার কথা জানালেন PM Modi

0
14
International Women's Day

নয়াদিল্লি: ২০২৪ সালের মধ্যে ভারতের অর্থনীতিকে (Indian economy) ৫ ট্রিলিয়ন ডলারে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যমাত্রার কথা আগেই জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই সময় আর বেশি দেরি নেই। তবে আদও কি প্রধানমন্ত্রী তাঁর দেওয়া কথা রাখতে পারবেন এই প্রশ্ন রয়েছেই। কারণ ২০২০ সালে হঠাত আসা করোনা এক ধাক্কায় গোটা বিশ্ব সহ ভারতের অর্থনীতির কোমর ভেঙে দিয়েছিল। সেই ধাক্কাই ধীরে ধীরে কাটিয়ে উঠছে দেশ। এর মধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানিয়েছেন ভারতীয় অর্থনীতি চলতি বছরে কত শতাংশ বৃদ্ধির প্রত্যাশা রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বুধবার জানিয়েছেন, “এই বছর, আমরা ৭.৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি আশা করছি, যা আমাদের সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল প্রধান অর্থনীতিতে পরিণত করেছে। উদীয়মান ‘নতুন ভারতে’ প্রতিটি ক্ষেত্রে রূপান্তরমূলক পরিবর্তন ঘটছে।” একই সঙ্গে ভারতের ডিজিটাল অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি তুলে ধরে।” মোদী জানিয়েছেন, এর মূল্য ২০২৫ সালের মধ্যে USD এক ট্রিলিয়ন হবে এবং সরকার প্রতিটি ক্ষেত্রের উদ্ভাবনকে সমর্থন করছে। BRICS-এর ব্যবসায়িক ফোরামের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে একটি ভার্চুয়াল ভাষণে নরেন্দ্র মোদী বলেছেন ভারতের জাতীয় পরিকাঠামোর অধীনে ১.৫ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিনিয়োগের সুযোগ রয়েছে। তাঁর কথায় বর্তমানে ভারতে যে ধরনের ডিজিটাল পরিবর্তন ঘটছে তা বিশ্বে আগে কখনও দেখা যায়নি।

আরও পড়ুন- সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে শিবসেনা যোগ, বিজেপির আক্রমণকে ভুলতে নারাজ উদ্ধব

করোনার ধাক্কার কথা মনে করিয়ে মোদী জানিয়েছেন, “মহামারী থেকে উদ্ভূত অর্থনৈতিক সমস্যাগুলি মোকাবেলা করার জন্য, ভারতে আমরা ‘সংস্কার, সম্পাদন এবং রূপান্তর’ মন্ত্র গ্রহণ করেছি। এবং এই পদ্ধতির ফলাফল ভারতীয় অর্থনীতির (Indian economy) সাম্প্রতিক উন্নয়ন থেকে স্পষ্ট।” তাঁর কথায়, ভারতের বর্তমান অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের একটি মূল স্তম্ভ হল প্রযুক্তি-নেতৃত্বাধীন বৃদ্ধি এবং সরকার মহাকাশ, নীল অর্থনীতি (blue economy), সবুজ হাইড্রোজেন, পরিচ্ছন্ন শক্তি, ড্রোন এবং ভূ-স্থানিক ডেটার মতো অনেক ক্ষেত্রে উদ্ভাবন-বান্ধব নীতি তৈরি করেছে। সরকারী নীতিগুলিতে আরও স্বচ্ছতা এবং সামঞ্জস্য আনতে এই কাজ ব্যাপক ভাবে চলছে এবং ভারতে পরিকাঠামোও বৃহৎ পরিসরে উন্নত করা হচ্ছে বলেই দাবি করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।