মাঙ্কি পক্সে আক্রান্তদের কোয়ারান্টাইনের নির্দেশ, জল্পনা লকডাউনের-ও

0
207

খাস খবর ডেস্ক: একে কোভিডে রক্ষে নেই। মাঙ্কি পক্স দোসর। কোভিডের পর বিশ্বজুড়ে দিনের পর দিন জারি থেকেছে লকডাউন। সেই রেশ কাটতে না কাটতেই আবারও কোয়ারান্টাইনের ঘোষণা করা হল। তবে এবারে আর করোনা ভাইরাস নয়, বরং মাঙ্কি পক্স ভাইরাসের কারণে কোয়ারান্টাইনের নির্দেশ জারি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: জ্ঞানবাপী মসজিদে ঢুকে শিবলিঙ্গ পুজো করতে চান বিশ্বনাথ মন্দিরের মোহন্ত

খাস খবর ফেসবুক পেজের লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/khaskhobor2020/

কোথায় নেওয়া হয়েছে এই সিদ্ধান্ত? টিনটিনের দেশ বেলজিয়ামে। মাঙ্কি পক্সের মোকাবিলা সেখানে ২১ দিনের কোয়ারান্টাইনের ঘোষণা করা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। দেশটির স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ ঘোষণা করেছে, “যদি কেউ মাঙ্কি পক্সে আক্রান্ত হন, তাহলে তাঁকে কমপক্ষে ৩ সপ্তাহ ‘সেলফ আইসোলেশনে’ থাকতে হবে।

এই কোয়ারান্টাইনের নির্দেশ স্বাভাবিকভাবেই বাড়িয়ে দিয়েছে ফের লকডাউনের সম্ভাবনা। তবে এবারে উপলক্ষ্য আর করোনা ভাইরাস নয়। ক্রমবর্ধমান মাঙ্কি পক্স পুনরায় লকডাউনের জল্পনা সৃষ্টি করেছে। যদিও মাঙ্কিপক্স গুটিবসন্তের তুলনায় কম ক্ষতিকর। এবং এতে মৃত্যুর হার ৪ শতাংশের-ও নিচে। তবে ইতিপূর্বে কখনওই আফ্রিকার বাইরে এই রোগটিকে মহামারীর আকারে ছড়াতে দেখা যায়নি। মূলতঃ সে কারণেই চিন্তায় পড়ে গিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

নতুন আমদানিকৃত এই ভাইরাসে সবথেকে ক্ষতিগ্রস্ত ব্রিটেন। দেশটিতে রবিবার নতুন করে ১১ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। ফলে সব মিলিয়ে সেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২০। ব্রিটেন ছাড়াও আরও মোট ১৩টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই রোগ। এদিকে কোয়ারান্টাইন জারি করার কারণ হিসেবে ‘বেলজিয়ান ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল মেডিসিন’ বলছে, “মাঙ্কি পক্সের অতিমারীর সম্ভাবনা কম। এতে সাধারণত কোয়ারান্টাইনের প্রয়োজন-ও হয়না‌‌। তবে কোভিড সংক্রমণের পর অনেকের শরীরেই অনাক্রম্যতা কমে গিয়েছে। এ কারণেই সতর্ক থাকতে বলা হচ্ছে।”