অবিশ্বাস্য পদক্ষেপ, বন্ধ হল সিগারেট, গাড়ি এবং মোবাইলের ফোনের আমদানি

0
85

খাস খবর ডেস্ক: শ্রীলঙ্কার পথেই হাঁটছে আরেক প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তান। দেশটিতে অর্থনীতি এতটাই সঙ্কটে যে বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চয়ে টান পড়েছে। ফলতঃ এক অবিশ্বাস্য পদক্ষেপ গ্রহণ করল শাহবাজ শরিফ সরকার।

আরও পড়ুন: পশ্চিমের অবিবেচক পদক্ষেপে এক চূড়ান্ত খাদ্য সংকটের মুখোমুখি গোটা বিশ্ব

খাস খবর ফেসবুক পেজের লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/khaskhobor2020/

বৃহস্পতিবার সরকারের তরফে তথ্যমন্ত্রী মারিয়াম আওরঙ্গজেব জানিয়ে দেন, চলমান আর্থিক মন্দা সামাল দিতে অপরিহার্য নয় এমন ৩৮ ধরণের বিলাসবহুল পণ্যের আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। উল্লেখ্য, এইসব পণ্যে রয়েছে মোবাইল ফোন, মোটর গাড়ি এবং সিগারেট-ও।

তথ্যমন্ত্রী দাবি করছেন, পাক সরকার একটি জরুরি অর্থনৈতিক পরিকল্পনার অধীনে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। তার ফলে প্রায় ৬০০ কোটি ডলার বেঁচে যাবে। এ প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখা দরকার, পাকিস্তানের ইতিহাসে দেশটির টাকার সর্বনিম্ন পতন হয়েছে সম্প্রতি। এ কারণেই এহেন নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হল পাক সরকার।

গাড়ি, সিগারেট এবং ফোন ছাড়া নিষিদ্ধ হওয়া পণ্যগুলি যথাক্রমে জুতো, গৃহস্থালির সরঞ্জাম, ফলমূল, ফলের জুস, মাছ, হিমায়িত মাংস, সস, পাস্তা, আইসক্রিম, ক্রকারিজ, ব্যক্তিগত অস্ত্র ও গোলাবারুদ, বৈদ্যুতিক বাতি, হেডফোন এবং লাউড স্পিকার, দরজা তথা জানালার কাঠামো, ভ্রমণে ব্যবহৃত ব্যাগ, স্যানিটারি দ্রব্য, কার্পেট, সংরক্ষিত ফলমূল, টিস্যু পেপার, আসবাব, শ্যাম্পু, বেকারি পণ্য, বিলাসবহুল ম্যাট্রেস ও স্লিপিং ব্যাগ, জ্যাম ও জেলি, কর্নফ্লেক্স, প্রসাধনী, হিটার ও ব্লোয়ার, সানগ্লাস, রান্নাঘরের সরঞ্জাম, দাড়ি কামানোর সামগ্রী, বিলাসী চামড়াজাত পোশাক, বাদ্যযন্ত্র, সেলুনের সরঞ্জাম, চকলেট ও নরম পানীয়। মারিয়াম আওরঙ্গজেব সরাসরি জানিয়ে দেন, এইসব নিষিদ্ধ হওয়া পণ্য এখন আর সাধারণ মানুষ তেমন ব্যবহার করে না।