প্রধানমন্ত্রীর ফোনই অনুপ্রেরণা দিয়েছিল, কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছেন লক্ষ্যের বাবা

0
44

স্পোর্টস ডেস্ক: ১৫ মে থমাস কাপ জিতে ইতিহাস তৈরি গড়েছে ভারতীয় ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড়রা। বিশ্ব ব্যাডমিন্টনে ভারতের মুখ উজ্জ্বল করে সোমবার রাতেই দেশে ফিরেছেন লক্ষ্য সেন। বেঙ্গালুরুর কেম্পেগৌড়া আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পরে লক্ষ্য সেন জেতার পর তার প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন যে, “ভারতের জন্য সত্যিই গর্বের মুহূর্ত, সবাই একটি দল হিসাবে একসঙ্গে খেলেছে।”

লক্ষ্য সেন আরও বলেন, “ফাইনালে সম্পূর্ণ ভিন্ন পরিবেশ ছিল। প্রথম গেমে হেরে যাওয়ায় ম্যাচটিতে আমার শুরুটা ভালো ছিল না… আমার মনে হয় দ্বিতীয় এবং তৃতীয় গেমে আমি সত্যিই কিছু পরিবর্তন করেছি। শেষ লেগের সময় আমি নার্ভাস ছিলাম, কিন্তু আমি নিরাপদ খেলেছি এবং কোনও তাড়াহুড়ো করিনি। আমরা টুর্নামেন্টে এতদূর যেতে পারব তা ভাবিনি। তবে একটি বিষয় নিশ্চিত ছিল, আমরা জানতাম যে আমরা যে কোনও দলকে হারাতে পারি। আমাদের চিন্তাভাবনা ছিল একবারে একটি ম্যাচে ফোকাস করা এবং ফলাফল নিয়ে চিন্তা করা নয়… কারণ কিছুই অসম্ভব নয়।”

আরও পড়ুন: তৃতীয়বার ফরাসি লিগের সেরা এমবাপ্পে, রিয়ালের সঙ্গে চুক্তি প্রায় চূড়ান্ত

এদিকে টিম ম্যানেজার বিমল কুমার বলেছেন যে, “সাত্ত্বিক এবং চিরাগ ডাবলস কম্বিনেশন হিসাবে সত্যিই ভাল করছে। ব্যাডমিন্টন ওয়ার্ল্ড ফেডারেশন র‌্যাঙ্কিংয়েও তারা শীর্ষ দশে রয়েছেন। আমি নিশ্চিত ছিলাম… আমাদের অনুপ্রেরণার প্রয়োজন ছিল, প্রধানমন্ত্রী যখন ফোন করেছিলেন তখন আমি খুব মুগ্ধ হয়েছিলাম, সেই মুহূর্তটি ছিল খুবই স্পেশ্যাল যখন দল চূড়ান্ত করা হয়েছিল, তখন এটা খুব স্পষ্ট ছিল যে আমাদের সেরা তিন সিঙ্গলস খেলোয়াড় লক্ষ্য, শ্রীকান্ত এবং প্রণয় আছে। আমি বিশ্বাস করতাম সে তাদের সামর্থ্য অনুযায়ী খেললে যে কাউকে হারাতে পারবে। এর আগেও তারা এ কাজ করেছেন।”

আরও পড়ুন: Anil Kumble : ‘কুম্বলে হটাও, দল বাঁচাও’, পরাজয়ে ক্ষুব্ধ সমর্থকরা

একই সঙ্গে লক্ষ্যের বাবা ধীরেন্দ্র কুমার সেন বলেছেন যে, “প্রধানমন্ত্রী মোদি যখন কথা বলেছিলেন আমরা অবাক হয়েছিলাম। তিনি আমাদের আদি বাসস্থান সম্পর্কেও জানতেন, যা তাকে জয়ী হতে অনুপ্রাণিত করেছিল। আমাদের খুব ভালো লেগেছে যে তিনি আমাদের সম্পর্কে জানতেন। আমরা কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বাসভরাজ বোমাইয়ের সঙ্গে ভিডিও কলে কথা বলেছি।” উল্লেখ্য, কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বাসভরাজ বোমাই রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে লক্ষ্য সেনকে ৫ লক্ষ টাকা পুরস্কার দেওয়ার ঘোষণা করেছেন। ব্যাডমিন্টন অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া (BAI) এর সভাপতি ড. হিমন্ত বিশ্ব শর্মা রবিবার থমাস কাপ জয়ী ভারতীয় পুরুষ দলের জন্য বিশেষ পুরস্কার ঘোষণা করেছেন। জয়ী দলের জন্য মোট এক কোটি টাকার পুরস্কার ঘোষণা করেছেন৷