শেষ দুই বলে ১০ রান, ট্রফি হাতছাড়া করে হতাশায় ভেঙ্গে পড়েছেন মোহিত

0
71

বিশ্বদীপ ব্যানার্জি: শেষ ওভারে দরকার ছিল ১৩ রান। সেখান থেকে সমীকরণটা পৌঁছয় দুই বলে বাকি ১০। এই সময়টা কেউই ভাবতে পারেনি পঞ্চমবারের মত আইপিএল ট্রফি উঠতে চলেছে মহেন্দ্র সিং ধোনির হাতে। মোহিত শর্মার বিষাক্ত ইয়র্কারের সামনে কার্যত অসম্ভব দেখাচ্ছিল সমীকরণটা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত এই অসম্ভবকে সম্ভব করে দিলেন রবীন্দ্র জাদেজা।

আরও পড়ুন: যে ৫ বার ট্রফি জিতেছে, একবারও লিগ জেতেনি ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস

- Advertisement -

অন্তিম ওভারের পঞ্চম বলে বোলারের মাথার ওপর দিয়ে ছক্কা। তারপর শেষ বল পাঠালেন ফাইন লেগ বাউন্ডারিতে। জাড্ডুর জাদুতে রুদ্ধশ্বাস ফাইনালে অবিশ্বাস্য বাজিমাত ধোনির চেন্নাই সুপার কিংসের। খুব স্বাভাবিকভাবেই চেন্নাই শিবিরে যেখানে উৎসবের আমেজ, উল্টোদিকে হতাশা বোলার মোহিত শর্মার জীবনে। জানা যাচ্ছে, মোহিত এতটাই হতাশ যে সেই রাতে দুই চোখের পাতা এক করতে পারেননি।

এক ওয়েবসাইটে মোহিত নিজেই এই হতাশার কথা তুলে ধরেছেন। তিনি বলেছেন, “কিছুতেই ঘুমাতে পারিনি। বারবার ভেবে গিয়েছি, কী করলে ম্যাচটা জিততে পারতাম।” এরই সঙ্গে যোগ করেছেন, “কিচ্ছু ভাল লাগছে না। কিছু যেন একটা হারিয়ে ফেলেছি আমি। এই সময়টা থেকে বেরিয়ে আসতে চেষ্টা করছি!”

খাস খবর ফেসবুক পেজের লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/khaskhobor2020/

মোহিত আরও জানাচ্ছেন, তিনি আসলে ইয়র্কার দিতে চেয়েছিলেন। “বলটা যে জায়গায় পড়ল সেখানে পড়া উচিৎ ছিল না। তারপর জাদেজার ব্যাটে লাগল।” বলেন, “নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করেছি। কিন্তু তা হল না শেষ পর্যন্ত।” এদিকে মোহিত যখন হতাশার সাগরে নিমজ্জিত, ঠিক তখনই উল্টোদিকের চেন্নাই শিবিরে কান পাতলে শোনা যাচ্ছে দারুণ সব কথা। ধোনি নাকি জাদেজাকে বলেছেন, এই চার-ছয় জাদেজা বুড়ো বয়সেও স্মরণ করবেন।