ভারতকে নতুন দিশা দেখালো বার্মিংহাম কমনওয়েলথ গেমস

0
25
commonwealth-games-6th-day-indias-performance

শান্তি রায়চৌধুরী: সব গেমসই আমাদের স্বপ্ন দেখায়, কিন্তু এবারের বার্নিংহাম কমনওয়েলথ গেমস যেন আমাদের অ্যাথলিটদের নতুন স্বপ্ন দেখাতে শুরু করল। তাহলে কি এবার বার্নিংহাম ভারতীয় খেলাধুলাকে নতুন দিশা দেখাতে শুরু করল? বার্মিংহ্যাম কিন্তু সেই ইঙ্গিতই দিল।

পরিসংখ্যানটা কিন্তু তাই বলছে। এ বারের গেমস থেকে মোট ৬১টা পদক এসেছে ভারতের। ২২টা সোনা, ১৬টা রুপো ও ২৩টা ব্রোঞ্জ। মোট ৬১ পদক নিয়ে তালিকার চার নম্বরে ভারত। অস্ট্রেলিয়া (১৭৮), ইংল্যান্ড (১৭৬) ও কানাডার (৯২) ঠিক পরেই।

- Advertisement -

এবারের গেমসকে কেন নতুন দিশা বলা হচ্ছে? কারণ, শুটিং, আর্চারির মতো খেলাগুলো ছাড়াও দারুন পারফরম্যান্স দেখিয়েছে। সেই সঙ্গে বলতে হচ্ছে ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডে এবার ভারতীয় অ্যাথলিটরা ধীরে ধীরে সাবলম্বী হয়ে উঠছেন। আর তাই বলা হচ্ছে নতুন স্বপ্ন দেখাতে শুরু করেছে এবারের গেমস।

ফিরে দেখা যাক ফেলে আসা কমনওয়েলথ গেমস গুলোর দিকে। ১৯৩৪ সালে ভারত প্রথম কমনওয়েলথ গেমসে অংশ নেয় নিয়েছিল।
প্রথমবার মাত্র একটা পদক পেয়েছিল ভারত।
১৯৬৬ সালে কিংসটন গেমসে পেয়েছিল ১০টা পদক।
১৯৯০ সালে অকল্যান্ড গেমসে ৩২টা পদক।
২০০২ সালে ম্যাঞ্চেস্টার গেমসে ৬৯টা পদক।
২০১০ সালে নয়াদিল্লি গেমসে পেয়েছিল ১০১ পদক।

এবার দেখে নেওয়া যাক এখন পর্যন্ত গেমস গুলির কোন ইভেন্ট থেকে কত পদক এসেছে।

শুটিং থেকে এসেছে –
৬৩টা সোনা, ৪৪টা রুপো, ২৮টা ব্রোঞ্জ সহ ১৩৫টা পদক।

ভারোত্তোলন থেকে এসেছে— ৪৬টা সোনা, ৫১টা রুপো, ৩৮টা ব্রোঞ্জ সহ ১৩৫টা পদক।

কুস্তি থেকে এসেছে—
৪৯টা সোনা, ৩৯টা রুপো, ২৬টা ব্রোঞ্জ সহ ১১৪টা পদক।

বক্সিং থেকে এসেছি—
১১টা সোনা, ১৩টা রুপো, ২০টা ব্রোঞ্জ সহ ৪৪টা পদক।

ব্যাডমিন্টন থেকে এসেছে— ১০টা সোনা, ৮টা রুপো, ১২টা ব্রোঞ্জ সহ ৩০টা পদক।

ব্যাডমিন্টন থেকে এসেছে— ৯টা সোনা, ৫টা রুপো, ১১টা ব্রোঞ্জ সহ ২৫টা পদক।

অ্যাথলেটিক্স থেকে এসেছে— ৬টা সোনা, ১১টা রুপো, ১৫টা ব্রোঞ্জ সহ ৩২টা পদক।

আরচারি থেকে এসেছে — ৩টে সোনা, ১টা রুপো, ৪টে ব্রোঞ্জ সহ ৮টা পদক।

হকি থেকে এসেছে—
১টা সোনা, ৪টে রুপো, ১টা ব্রোঞ্জ সহ ৬টা পদক।

স্কোয়াস থেকে এসেছে—
১টা সোনা, ২টো রুপো, ২টো ব্রোঞ্জ সহ ৫টা পদক।

টেনিস থেকে এসেছে —
১টা সোনা, ১টা রুপো, ২টো ব্রোঞ্জ সহ ৪টে পদক।

লন বল থেকে এসেছে —
১টা সোনা, ১টা রুপো সহ ২টো পদক।

প্যারা টিটি থেকে এসেছে — ১টা সোনা, ১টা ব্রোঞ্জ সহ ২টো পদক।

প্যারা পাওয়ারলিফ্টিং থেকে এসেছে—
১টা সোনা।

জুডো থেকে এসেছে—
৫টা রুপো, ৬টা ব্রোঞ্জ সহ ১১টা পদক।

জিমনাস্টিক থেকে এসেছে— ১টা রুপো, ২টো ব্রোঞ্জ সহ ৩টে পদক।

ক্রিকেট থেকে এসেছে—
১টা রুপো।

সাঁতার থেকে এসেছে—
১টা ব্রোঞ্জ।

এবার যদি শেষ তিনটে গেমসের কথা ধরা তাহলে দেখা যাবে
২০১৪ সালে গ্লাসগো গেমসে ৬৪টা পদক জিতেছিল ভারত। যার মধ্যে ছিল ১৫টা সোনা, ৩০টা রুপো ও ১৯টা ব্রোঞ্জ এসেছিল। পদক তালিকায় পাঁচে ছিল ভারত।

২০১৮ সালে অস্ট্রেলিয়ার গোল্ড কোস্টে ২৬টা সোনা, ২০টা রুপো, ২০টা ব্রোঞ্জ সহ ৬৬টা পদক এসেছিল। কিন্তু শেষ দু’বারই অধিকাংশ সোনা-রুপো-ব্রোঞ্জ এসেছিল শুটারদের হাত ধরে। কিন্তু সেটা এ বার হয়নি। বার্মিংহ্যাম গেমসে শুটিং ছিল না।

ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ড থেকে অন্য বারের তুলনায় এসেছে বেশি পদক। যদি শুটিং থাকত, হয়তো আবার পদক জয়ের সেঞ্চুরি করে ফেলত ভারত।তাই বলা যেতে পারে, এবারের বার্নিংহাম গেমস ভারতকে একটা নতুন দিশা দেখাচ্ছে।