শেষরক্ষা হল না, সম্ভবত শনিবার-ই গদি ছাড়তে হবে ইমরানকে

0
181

খাস খবর ডেস্ক: অনাস্থা ভোট রুখতে রাষ্ট্রপতি আরিফ আলভিকে দিয়ে পার্লামেন্ট ভাঙিয়েছিলেন। তবু শেষরক্ষা হল না। অনাস্থা ভোট হচ্ছেই। কারণ ডেপুটি স্পিকারের রায়ের ভিত্তিতে সংসদ ভেঙে দেওয়ার ঘটনাকে অবৈধ ঘোষণা করল পাক সুপ্রিম কোর্ট।

আরও পড়ুন: ইমরান খান বিরোধীদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ পাকিস্তানে

- Advertisement -

বৃহস্পতিবার ভারতীয় সময় রাত ৯টা নাগাদ এই রায় দিয়েছে পাকিস্তানের সর্বোচ্চ আদালত। ফলে সংসদকে-ও পুনর্বহাল করা হল। সেইসঙ্গে এও ঠিক হয়ে গেল, কবে হবে ইমরান খান সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা ভোট। আগামী ৯ এপ্রিল অর্থাৎ শনিবার হবে এই অনাস্থা ভোট।

অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ইমরান খানের বিদায়-ও মোটামুটি নিশ্চিত। কারণ সংসদে এ মুহূর্তে যা চিত্র তাতে বিরোধীরা-ই সংখ্যাগরিষ্ঠ। পাক সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি উমর আতা বান্ডিয়ালের নেতৃত্বাধীন ৫ বিচারপতির ইমরান সরকারের বিরুদ্ধে এই রায় দিয়েছে।

খাস খবর ফেসবুক পেজের লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/khaskhobor2020/

প্রধান বিচারপতি বান্ডিয়াল এই প্রসঙ্গে বলেন, “ডেপুটি স্পিকারের রায় ভুল ছিল। আমাদের জাতীয় স্বার্থের দিকে নজর দিতে হবে।” জানা যাচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী বিচারপতি ছাড়া ইজাজুল আহসান, মহম্মদ আলি মাজহার, মুনিব আখতার এবং জামাল খান মান্দোখেল— এই ৪ জন বিচারপতি উক্ত বেঞ্চে ছিলেন।