হুইল চেয়ার জানে রাজদণ্ডের ওজন

0
121

সুজয় গুহ: চেয়ার তো সারা বছরই আছে। এর সাথে যদি চাকাটা জুড়ে দেওয়া যায় তাহলে ব্যাপারটা আরো একটু ত্বরান্বিত হয় আর কি। চেয়ার তো আর গড়ায় না। কিন্তু বিশেষ বিশেষ সময়ে চেয়ার গড়ানোর প্রয়োজন হয়। অনেকে বলবেন, সে তো অফিসের চেয়ারেও চাকা লাগানো থাকে। কিন্তু সে চাকার আকার এবং বহর অনেক ক্ষুদ্র। সে চাকা-চেয়ার বড় আরাম প্রিয়, দায়িত্বজ্ঞানহীন, কর্মবিমুখ, আলস্যে মোড়া, সদাই বসের নির্দেশের উপর নির্ভরশীল। কিন্তু আজ যে চেয়ারের কথা বলা হচ্ছে সেই চেয়ারের মুখাপেক্ষী কোটি কোটি মানুষ।

আরও পড়ুন: অশরিরী উপস্থিতি

- Advertisement -

এই চেয়ারের দায়িত্ব সাধারণ মানুষের কল্পনারও অতীত। বিশেষ বিশেষ সময়ে এই চেয়ারে প্রমাণ সাইজের চাকা লাগানোর প্রয়োজন হয়ে পড়ে। বিরামহীন ভাবে যেমন ছুটে চলেছে আমাদের এই পৃথিবী, ঠিক তেমনি আপাতদৃষ্টিতে এই চেয়ার থেমে থাকলেও আসলে তা নিরবিচ্ছিন্নভাবে ঘূর্ণায়মান। কখনো এই চাকা দৃশ্যমান কখনো বা এই চেয়ারের চাকা অদৃশ্য। নিন্দুকেরা এই চেয়ারের সাথে হুইল চেয়ারের তুলনা করবেন।

মন বড় অসহিষ্ণু। দুর্নীতির বেড়াজালে আটকে যখন চেয়ারের ক্রমশ কম্পমান চারপায়া নড়বড় করতে থাকে তখন সহ্যের সীমা ছাড়িয়ে যাওয়া রাজ্যের দশ কোটি মনকে সজল নয়নে বাঁধতে চেয়ারে চাকা লাগানোর প্রয়োজন হয়ে পড়ে বৈকি। “এ ব্যথা কি যে ব্যথা বোঝে কি আনজনে। সজনী আমি বুঝি, মরেছি মনে মনে!!” সত্যিই তো নিজের লোকেরা কি ফাঁকা চেয়ারের ব্যথা বুঝবে? আর সেই নিজের লোকের সন্ধানে খোকাবাবু রাজ্য তোলপাড় করেছেন। প্রায় দুই মাসাধিককাল ধরে নিজের লোক খুঁজতে বেরিয়ে খোকাবাবু পাটিগণিতে ভুল করেছেন ধরে নিয়ে অসহিষ্ণু মনের অঙ্ক মেলাতে ব্যথা এবং একই সাথে ওষুধের সন্ধান করছে সেই দায়িত্ত্ববান চেয়ার। পৃথিবীতে সবচেয়ে কড়া ওষুধের ডোজ হচ্ছে অশ্রু। একমাত্র ভারাক্রান্ত হৃদয়ই পারে সব ভুলে মেলাতে এবং মিলিত হতে।

খাস খবর ফেসবুক পেজের লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/khaskhobor2020/

গতবারের চাকার তুলনায় এবারের চেয়ারের চাকা আরো বড় হয়েছে। অপেক্ষাকৃত কম সময়ে অনেক বেশি দূরত্ব অতিক্রম করতে চাকার পরিধি বাড়ানো প্রয়োজন। এই চেয়ার জানে রাজদণ্ডের প্রকৃত ওজন। জনরোষে যখনই চেয়ারের চার পায়া কাঁপতে থাকে তখনই রাজদণ্ড টিকিয়ে রাখার ভিন্ন ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করতে হয়। জন বৈতরণী পার হতে তাই কখনো এই চেয়ার হয়ে ওঠে জলযান, কখনও বা পক্ষীরাজ সওয়ারী। ছলে-বলে-কৌশলে রাজদণ্ডকে টিকিয়ে রাখাই এই চেয়ারের ধর্ম।