Andrew Symonds: মাঙ্কি গেট থেকে মাদকাসক্তি, বিতর্কের মাঝেও উজ্জ্বল কেরিয়ার

0
59
From Monkey Gate controversy to alcohol addiction, Andrew Symonds' career was in controversy

স্পোর্টস ডেস্ক: শনিবার রাতে গাড়ি দুর্ঘটনায় প্রয়াত অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি অলরাউন্ডার অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস। পুলিশ জানিয়েছে, রাস্তার লাইনচ্যুত হয়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়েছে গাড়িটি। দুর্ঘটনার পর সাইমন্ডসকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানকার চিকিৎসকরা তাকে বাঁচানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু দুর্ঘটনার সময় তিনি এতটাই আহত হন যে চিকিৎসকরা তাকে বাঁচাতে পারেননি। ৪৬ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন কিংবদন্তি অসি তারকা।

মোটা ঠোঁটের চারপাশে জিঙ্ক অক্সাইডের গাঢ় প্রলেপ, সেই সঙ্গে আক্রমণাত্মক মেজাজ। এই ট্রেডমার্ক। যা দেখে অনেক আতঙ্কে থাকত প্রতিপক্ষরা। অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ২৬ টি টেস্ট, ১৯৮ টি ওয়ানডে এবং ১৪ টি টি -২০ খেলেছিলেন। নানান বিতর্কের মধ্য দিয়েই চলেছে তার কেরিয়ার। ২০০৮ সালের কুখ্যাত সিডনি টেস্ট, যেখানে এই সাইমন্ডস-ই হরভজন সিংয়ের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছিলেন কুখ্যাত ‘মাঙ্কিগেট’ কাণ্ডে। এই বিতর্কের পর সাইমন্ডস নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়েন, এরপর অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটও তার চুক্তি বাতিল করে। অনেক অভিজ্ঞ ক্রিকেটার সাইমন্ডসের কেরিয়ারের শেষের জন্য মাঙ্কি গেট কেলেঙ্কারিকে দায়ী করেছিলেন।

- Advertisement -

আরও পড়ুন: ভারতীয় ক্রিকেটকে সামনে পেলেই কাঁচা চিবিয়ে খেতেন অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস

২০০৭-০৮ সালে ভারতীয় দলের অস্ট্রেলিয়া সফরে বিতর্ক। সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট চলছিল সিডনিতে খেলা হয়েছিল এবং ম্যাচটি অস্ট্রেলিয়া জিতছিল। ম্যাচ চলাকালীন হরভজন সিং এবং অ্যান্ড্রু সাইমন্ডসের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। যার পরে রিকি পন্টিং ম্যাচ অফিসিয়ালদের কাছে সাইমন্ডসকে নিয়ে হরভজন সিংয়ের বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্যের অভিযোগ করেন। পন্টিং বলেছিলেন যে, হরভজন সিং অ্যান্ড্রু সাইমন্ডসকে বাঁদর বলেছিলেন। এই ঘটনা শোনার পর হরভজন সিংকে কিছু ম্যাচের জন্য ব্যান করা হয়েছিল। কিন্তু তারপরেও ভারত হরভজনের পাশে দাঁড়িয়েছিল। সে সময় ভারত অস্ট্রেলিয়া সফর বাতিলের হুমকিও দিয়েছিল। শেষ পর্যন্ত হরভজন সিংয়ের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয় এবং তাকে ম্যাচ ফি জরিমানা করা হয়।

আরও পড়ুন: ফের ক্রীড়া জগতে নক্ষত্রপতন, প্রয়াত কিংবদন্তি ক্রিকেটার অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ২০০৯ সালে শেষ ম্যাচ খেলেছিলেন এই অলরাউন্ডার। ওই বছরই মদ্যপান এবং অন্যান্য বিষয়ে নিয়ম লঙ্ঘনের জন্য সাইমন্ডসকে টি -২০ বিশ্বকাপ শিবির থেকে দেশে পাঠানো হয়েছিল। এই ঘটনার পর ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া তার চুক্তি বাতিল করে। আর কখনও তিনি ব্যাগি গ্রিন টুপি পড়ে মাঠে নামেননি। এদিন সাইমন্ডসের মৃত্যুর খবরে শোক প্রকাশ করেছেন হরভজন সিং। তিনি টুইট করে লিখেছেন, “অ্যান্ড্রু সাইমন্ডসের আকস্মিক মৃত্যুর খবরে মর্মাহত। তিনি খুব তাড়াতাড়ি প্রয়াত হলেন। পরিবার এবং বন্ধুদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা। প্রয়াত আত্মার শান্তি কামনা করি।”