শুভেন্দুও কি তৃণমূলের পথে, জ্যোতিপ্রিয়র মন্তব্যে বাড়ছে জল্পনা

0
177

কলকাতা: একটি দল বদল এবং সেই সূত্রেই আগামীদিনে আরও দল বদলের সম্ভবনা তৈরি হল৷

নিজের জন্মদিনের দিন দল বদলের খবরের শিরোনামে অর্জুন সিং৷ আর সেই অর্জুনকে নিয়েই প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে ‘বিগ ব্রেকিং’ সামনে আনলেন তৃণমূলের দাপুটে নেতা তথা মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক৷ এদিন ক্যামাক স্ট্রিটে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের অফিসে অর্জুনের গেরুয়া বসন বদলের পর এই সংক্রান্ত প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর ‘বিশ্বস্ত’ বালুর (জ্যোতিপ্রিয়র ডাক নাম) দাবি, ‘‘আজ অর্জুনের সঙ্গে আধঘণ্টা কথা হয়েছে৷ দলের অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে অনেক কথা হয়েছে৷ ও বলেছে বিজেপির পশ্চিমবঙ্গে যারা নেতা আছে তারা একে একে সকলে ২০২৩ সালের মধ্যে তৃণমূলে আসতে বাধ্য হবে৷ এবং আমি নিজেও সেটা মনে করি৷’’

স্বভাবতই, কারা কারা রয়েছেন সেই তালিকায় তা নিয়ে চর্চ্চা শুরু হয়েছে বাংলার রাজনৈতিক উঠোনে৷ তালিকায় কি শুভেন্দুরও নাম আছে? সরাসরি ‘হ্যাঁ’ কিংবা ‘না’তে জবাব দেননি জ্যোতিপ্রিয়৷ যার জেরে চড়েছে জল্পনার পারদ৷ কারণ, রাজনৈতিক মহল মনে করিয়ে দিচ্ছে, মুকুল রায়, সব্যসাচী দত্ত, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে অর্জুন সিং সকলেই এক সময় দলনেত্রীর সম্পর্কে বিস্ফোরক মন্তব্য করেও পরে ফের দলে ফিরে এসেছেন৷ শুধু তাই নয়, মোদী-শাহের ঘনিষ্ঠ বৃত্তে থাকা বাবুল সুপ্রিয়র প্রসঙ্গ টেনে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা বলছেন, বাবুল দিদিকে নিয়ে ভোটের সময় গানও লিখে ফেলেছিলেন৷ সেই বাবুলের জন্য যদি তৃণমূলের দরজা খোলা থাকে তাহলে শুভেন্দুর জন্যও অবশ্যই খোলা আছে৷

তবে শুভেন্দু আদৌ বিজেপি ছেড়ে ফের পুরনো দলে ফিরবেন কি না, তা নিয়ে তাঁর কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি৷ যযিও সাম্প্রতিক অতীতে তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের প্রসঙ্গ টেনে ওই মহল মনে করিয়ে দিচ্ছেন, কুণালও দাবি করেছিলেন, ‘‘শুভেন্দুও তলে তলে তৃণমূলে আসার চেষ্টা করছেন৷’’ রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের আরেকটি অংশ অবশ্য বলছেন, জ্যোতিপ্রিয় যেমন স্পষ্ট করে কারও নামোল্লেখ করেননি তেমনই শুভেন্দুরও বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে ফেরার সম্ভবনা ক্ষীণ৷ কারণ, দলবদুলদের দলে ফেরানো হচ্ছে অভিষেকের মাধ্যমেই৷ আর শুভেন্দুর দলত্যাগের প্রধান কারণ ছিলেন এই অভিষেকই৷ ফলে অধিকারী পরিবারের মেজো সন্তানের দল বদলের সম্ভবনার বাস্তবায়ন নিয়ে সন্ধিগ্ধ সংশ্লিষ্ট মহল৷ তবুও রাজনীতিতে অসম্ভব বলে কোনও কিছুই নেই, মনে করিয়ে ওই মহল বলছে, দল বদলের বর্তমান হিড়িকে কোনও কিছুই অসম্ভব নয়৷

আরও পড়ুন: দল বদলের হিড়িকে শুধু সাধারণ মানুষের নয়, ক্ষতি হচ্ছে রাজনীতিরও