অম্বুবাচীতে দক্ষিণেশ্বরের কালীমূর্তির মুখ ঢাকতেন না শ্রীরামকৃষ্ণ, কেন জানেন

0
164

বিশ্বদীপ ব্যানার্জি: অম্বুবাচী চলাকালীন যে কোনও মন্দিরেই মাতৃমূর্তি-ই লাল কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখার নিয়ম প্রচলিত। কারণটা আর কিছুই নয়। ঋতুমতী পৃথিবীকে অশুচি মনে করা হয়। তাই শাক্তপীঠসমূহে দেবীদর্শন এসময় ঘোরতর নিষিদ্ধ। শাস্ত্রে বলেছে, দেবী মহামায়া স্বয়ং-ই প্রকৃতি। আর অম্বুবাচী চলাকালীন তিনি রজঃস্বলা হন।

আরও পড়ুন: স্নানযাত্রার পর প্রতিবছর কেন জ্বর হয় জগন্নাথদেবের

কিন্তু ঠাকুর শ্রী শ্রীরামকৃষ্ণ পরমহংসদেব এসব মানতেন না‌। তিনি মা ভবতারিণী অর্থাৎ দক্ষিণেশ্বর মন্দিরের কালীমূর্তির মুখ অম্বুবাচী চলাকালীন ঢাকতে দিতেন না।

এ নিয়ে কম বিতর্ক কম সমালোচনার মুখে পড়তে হয়নি ঠাকুরকে। কিন্তু সেসব হেলায় উপেক্ষা করে নিজে সংকল্পে দৃঢ় ছিলেন তিনি। কারণ মা ভবতারিণী প্রসঙ্গে ঠাকুরের বিশ্বাসটা ছিল পাকা‌। কী সেই বিশ্বাস?

খাস খবর ফেসবুক পেজের লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/khaskhobor2020/

ঠাকুর রামকৃষ্ণ মা ভবতারিণীকে একটি বালিকা ছাড়া কিছুই ভাবতে পারতেন না। কারণ, প্রথমদিকে যতবার-ই দেবী তাঁকে দেখা দিয়েছেন, বালিকারূপেই দিয়েছেন। তাই পরবর্তীতে মায়ের স্বরূপ দর্শন করলেও মা ঠাকুরের কাছে বালিকা হয়েই রয়ে যান। আর বালিকা তো রজঃস্বলা হয়না। সে কারণেই অম্বুবাচীতে-ও মাতৃবিগ্রহের মুখ ঢাকা দিতেন না ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণ।