মাও আতঙ্কের জের, নিরাপত্তারক্ষী চেয়ে পুলিশের কাছে আবেদন তৃণমূল নেতার

0
28

বাঁকুড়া: জঙ্গল মহলে নতুন করে শুরু হয়েছে বহিরাগতদের আনাগোনা। সামনে এসেছে মাও কার্যকলাপের একাধিক নমুণা। পুলিশের তরফ থেকে আগেই জারি করা হয়েছিল লাল সতর্কতা। রাজ্য পুলিশের ডিজি ফিরে যাওয়ার পর জঙ্গল মহলে নতুন করে শুরু হয়েছে পুলিশের নাকা তল্লাশি। তাতেও অবশ্য মাও আতঙ্ক দূর হচ্ছে না।

সূত্রের খবর, মাওবাদী আতঙ্কে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন একাধিক তৃণমূল নেতা। বিশেষত, রানিবাঁধের তৃণমূল নেতৃত্ব মাওবাদীদের বাড়বাড়ন্তের খবরে যথেষ্ট ভীত। দলীয় সূত্রের খবর, ওই এলাকার শাসক দলের পাঁচ নেতা নিরাপত্তারক্ষী চেয়ে পুলিশের কাছে আবেদন জানিয়েছেন। তাদের দাবি, এলাকায় উন্নয়নের কাজ থমকে দিতেই তাদের খুন করা হতে পারে। তাই নিজেদের জীবন সুরক্ষার জন্য জেলা পুলিশের কাছে তাঁরা আবেদন জানিয়েছেন।

- Advertisement -

যার জেরে অনেকের স্মৃতিতে ভেসে উঠছে এক দশক আগের মাওবাদী কার্যকলাপের দিনগুলো। অতীতে জঙ্গল মহলের সিপিএম নেতাদের এভাবেই পুলিশ রক্ষী নিয়ে ঘুরতে দেখা যেত। এবার মাও আতঙ্কে পূর্বসূরিদের দেখানো পথেই বর্তমান শাসক হাঁটতে চলেছে বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

যদিও ওই এলাকার শাসক দলের পাঁচ নেতার নিরাপত্তারক্ষী চেয়ে পুলিশের কাছে আবেদন জানানোর ‘খবরের’ সত্যতা স্বীকার করা হয়নি বাঁকুড়া জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে। তবে জঙ্গল মহলে নতুন করে মাও আতঙ্কের কথা মানছেন শীর্ষ পুলিশ কর্তারা গোয়েন্দা সূত্রে খবর, মাওবাদী নেতা অজয় ও আকাশ জঙ্গলমহলে আত্মগোপন করে থাকার পাশাপাশি নতুন করে সংগঠন বিস্তারের কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। তারই উদাহরণ স্বরূপ সম্প্রতি বাঁকুড়ার একাধিক জায়গা থেকে মাও পোষ্টার উদ্ধারের পাশাপাশি গত ৮ এপ্রিল মাওবাদীদের ডাকা বনধে ব্যাপক সাড়া মেলে খোদ জঙ্গল মহলে।