সন্তোষ-রনজিতে বাংলার হতাশাজনক পারফর্মেন্স নিয়ে খুশি নন ক্রীড়ামন্ত্রী

0
23

সব্যসাচী ঘোষ: চলতি সন্তোষ ট্রফিতে তথৈবচ পারফর্মেন্স বাংলার। মূলপর্বে নিজেদের গ্রুপে একটিও ম্যাচ জেতেনি বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্যের ছেলেরা। চারটি হার ও একটি মাত্র ড্র – ফলে বিদায় নিতে হয়েছে বাংলাকে।

আরও পড়ুন: ডার্বিতে গোলের রাস্তা খুলতে অনুশীলনে বিশেষ প্রস্তুতি এটিকে মোহনবাগানের

- Advertisement -

আর এই বিষয়টিতে একেবারেই খুশি নন রাজ্যের ক্রীড়ামন্ত্রী অরুপ বিশ্বাস। এক অনুষ্ঠানে এসে অরুপ বিশ্বাস বলেন, “‘এটা কী চলছে। কারা খেলছে বাংলার জার্সি গায়ে? ওরা কি সন্তোষ ট্রফিতে খেলার যোগ্য? কারা এমন দল গড়ল? আমার তো মনে হচ্ছে, ক্রিকেটর মতো ফুটবলেও বাংলা দলে কোটা সিস্টেম চলছে। এটা মানা যায় না। সিএবি কিংবা আইএফএ কর্তারা হাজার হাজার ক্রীড়াপ্রেমীর আবেগ নিয়ে ছিনিমিনি খেলছেন। কোটা প্রথা না উঠলে বড় সাফল্য আসবে।”

খাস খবর ফেসবুক পেজের লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/khaskhobor2020/

এদিকে রনজি ট্রফি ফাইনালে যেভাবে একপেশেভাবে হারতে হয়েছে, সেটিতেও বেজায় ক্ষিপ্ত অরুপ বিশ্বাস। তিনি বলেছেন, “আশায় ছিলাম, বাংলা দল এবার ঘরের মাঠে রনজি ট্রফি জিতবে বলে। কিন্তু আক্ষেপ রয়েই গেল। খেলায় হারজিত থাকে। কিন্তু বাংলা দল তো জেনে শুনে বিষ পান করল। ওপেনার হিসেবে ফাইনালে এমন একজন ক্রিকেটারকে খেলানো হল, যে এর আগে বড় কোনও ম্যাচে অংশ নেয়নি। এমন হঠকারি সিদ্ধান্ত কার? সিএবি কর্তারা দায় এড়াতে পারেন না। লক্ষ লক্ষ মানুষের আশায় জল ঢেলে দিচ্ছেন কিছু স্বার্থান্বেষী কর্তা। ৩৩ বছর ধরে আমরা অপেক্ষা করছি আরও একবার রনজি ট্রফি জয়ের স্বাদ পেতে। সেই সুযোগ তো এসেছিল। কিন্তু হেলায় হারালাম কিছু কর্মকর্তার দোষে।”