সমাজের ‘না’ কে তুড়ি মেরে সাফল্যের পথে ঘরোয়া বধূ, জানুন মৌ-এর কাহিনী

0
316

খাস ডেস্ক: খিড়কি থেকে সিংহদুয়ারের মধ্যে আবদ্ধ থাকার দিন কবেই গিয়েছে৷ তা বলে সমাজের চেনা ছন্দ ভেঙে এগোতে চাওয়া কোনও নারীকে যে সাদরে গ্রহণ করে নেওয়া হয়, তেমনটাও নয়৷ বরং পদে পদে ছড়ানো থাকে হাজারও প্রতিবন্ধকতা- ‘হবে না’, ‘পারবে না’, ‘বেকার চেষ্টা করছে’৷ তবে আন্তরিক চেষ্টা, সততা এবং ধারাবাহিকতা থাকলে বাধা টপকে লক্ষ্যে যে পৌঁছানো যায়, সেটা করে দেখিয়েছেন মৌ রাখী দাস। মুখের বুলি দিয়ে নয়, নিজের কাজের মাধ্যমে মৌ তুলে ধরেছেন চিরন্তন সেই সত্যটাকে- ‘আমি নারী আমি পারি’৷ যার ফলে সাধারণ ছাপোষা গৃহবধূ থেকে মৌ রাখী দাস এখন একজন সফল মেকআপ আর্টিস্ট৷ শুধু নিজের স্বপ্ন পূরণ করা নয়, মৌয়ের হাত ধরে আরও হাজার মৌ নতুন করে স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছেন৷ যে স্বপ্ন জীবনের গান গায়, জীবনের কথা বলে৷

- Advertisement -

২০০৬ সাল থেকে যাত্রা শুরু মৌ-য়ের কুইন্স বিউটি পার্লরের। ছোট্ট একটি পার্লার এখন পরিণতি পেয়েছে মেকওভার অ্যাকাডেমিতে। নাম কুইন’স মেকওভার অ্যান্ড অ্যাকাডেমি। মৌ রাখী দাস প্রথমে ছিলেন বিউটিশিয়ান, তারপর ধীরে ধীরে একজন সফল মেকআপ আর্টিস্ট হয়ে উঠেছেন। মৌ জানান, ২০১৬ সাল থেকে তিনি মেকআপ আর্টিস্ট হওয়ার প্রশিক্ষণ নেওয়া শুরু করেন। সেই যাত্রাই এখনও চলছে। সংসার সন্তান সব দিক বজায় রেখে মৌ-এর নিজের ইচ্ছা পূরণের ঘটনা বহু গৃহবধূকেই উৎসাহিত করবে। যোগাবে অনুপ্রেরনাও। এই স্টুডিওতে নিজের নতুনত্ব কাজ যেমন করবেন সেই সঙ্গে সঙ্গে সঙ্গে করা হবে ফটোশ্যুটও। তবে কেবল নিজের নয় মৌ তাঁর  স্টুডিওকে ভাড়াও দেবেন। অন্যকেউ চাইলেও নিজের মডেলের ছবি তুলতে পারবেন মৌয়ের স্টুডিওতে।

ব্রাইডাল, পার্টি মেকআপ কিংবা যেকোনো রকমের হেয়ার স্টাইল শিখতে চান তাঁদের জন্য রয়েছে সুখবর ।  কারণ মৌয়ের স্টুডিও উদ্বোধন ও হয়ে গিয়েছে। উদ্বোধন করেছেন নৈহাটির বড়মাকে ফুটিয়ে তোলার পিছনে থাকা বাংলার খ্যাতনামা মেকাপ আর্টিস্ট মুক্তি রায়। যার কাজ সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়েছিল। মেকাপ আর্টিস্ট মুক্তি রায়ের থেকেই মৌ তাঁর যাবতীয় কাজ শিখেছেন বলেই জানিয়েছেন খাসখবকে। মৌ-এর কথায়, “আমার কাছে মুক্তি ম্যামের অবদান প্রচুর।” এই সাফল্যের পিছনে আরও অনেকের অবদান আছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। মৌয়ের কথায়, “এই পেশা মেয়েদের জন্য অনেকটাই ভাল প্রফেশনাল মেকআপ। নিজেদের প্রতিষ্ঠা করার জন্য এই কাজ শিখলে বহু মেয়ের অনেক উপকার হবে এবং নিজের পরিচিতি গড়ে তুলতে পারবেন।”

যারা নিজেদের পরিচয় গড়ে তুলতে চান তারা অবশ্যই আসতে পারেন হুগলি জেলার দশঘরা গ্রামের রায়পাড়াতে। সেখানেই রয়েছে কুইন’স মেকওভার অ্যান্ড অ্যাকাডেমি। যেখানে মৌ করবেন ক্লাস। প্রফেশনাল মেকআপ থেকে অ্যাডভান্স হেয়ার স্টাইল সবটাই হাতে ধরে নিপুণ দক্ষতার সঙ্গে সেখানো হবে। গুরুদক্ষিণাও থাকছে সাধ্যের মধ্যেই। ১০ হাজার থেকে শুরু বেসিক প্রশিক্ষণ। স্টুডির ভাড়াও থাকছে সাধ্যের মধ্যেই। যদি কেউ নিজের পরিচয় গড়ে তুলতে চান তবে অবশ্যই যোগাযোগ করুন মৌ-এর  সঙ্গে। কাজ ও বিস্তারিত তথ্য জনাতে যোগাযোগ করুন ৭০৭৬১৭১৭৭৬ এই নম্বরে।

খাস খবরের পক্ষ থেকে মৌ রাখী দাসের জন্য রইল অনেক অনেক শুভেচ্ছা