KK-র মৃত্যুর পর বাংলার বিরুদ্ধে একজোট বলিউড

0
390

খাস ডেক্স: KK-র মৃত্যুর পর সরব হয়েছেন বলিউডের অভিনেতা থেকে শিল্পীরা৷ কলকাতায় অনুষ্ঠান বয়কটের ডাক দিয়েছেন সঙ্গীত জগতের শিল্পীরা৷ এই পরিস্থিতিতে কে কে-র মৃত্যুকে খুন বলে বাংলা বয়কট করা উচিত৷ এমনটাই বললেন প্রয়াত বলিউড অভিনেতা ওম পুরীর প্রাক্তন স্ত্রী নন্দিতা পুরী৷

তিনি একরাশ ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে বলেন, ‘‘আমি শুনলাম ওই হলে আড়াই হাজার বসার ব্যবস্থা আছে৷ সেখানে কী করে সাত হাজার লোক ঢুকতে পারে৷ এই রকম বিশৃঙ্খলতা কলকাতাতেই হয়৷ হলে এসি কাজ করছিল না তার মধ্যেই তিনি অনুষ্ঠান করে গিয়েছেন৷ সেই দিকে খেয়াল রাখেনি কর্তৃপক্ষ৷ কলকাতা এই ভাবে শিল্পীদের ডেকে খুন করে বুঝি? এই মৃত্যুর ঘটনায় সিবিআই তদন্ত করুক৷’’

ইতিমধ্যে আগামী দিনে অনুষ্ঠান ঘিরে কলেজগুলিকে উচ্ছ্বাসের মাত্রা কমানোর নির্দেশ দিয়েছে তৃণমূল৷ সেই সঙ্গে বিলাসিতা কমিয়ে খরচে লাগাম টানার কথাও জানিয়েছে৷ তৃণমূলের নির্দেশে সুরেন্দ্রনাথ গ্রুপ অফ কলেজের ৮ জুন ফেস্ট বন্ধের খবর পাওয়া গিয়েছে৷

মঙ্গলবার কলকাতার নজরুল মঞ্চে অনুষ্ঠান ছিল তাঁর৷ সেখানে অনুষ্ঠান শুরুর আগে বিকেল সাড়ে ৬ টা নাগাদ ব্যাপক ভিড়ের কারণে গায়কের মুখের সামনেই হঠাৎ অগ্নি নির্বাপক যন্ত্র ফেটে যায়৷ তারপর থেকেই তিনি অসুস্থ বোধ করতে থাকেন৷ অনুষ্ঠান চলাকালীনও বেশ অস্বস্তিতে ছিলেন তিনি৷

জানা গিয়েছে, বারবার স্পট লাইট বন্ধ করার জন্য বলছিলেন কে কে৷ বিরতির সময়ে ব্যাক স্টেজে বিশ্রামও নেন তিনি৷ এরপর হোটেলে ফিরলে আরও অসুস্থ বোধ করতে শুরু করেন। এরপর সঙ্গীতশিল্পীকে নিয়ে যাওয়া হয় সিএমআরআই হাসপাতালে৷ সেখানে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন৷

এরপর বুধবার সকাল ১১ টা নাগাদ গায়কের মৃত্যুর কারণ জানতে করা হয় ময়নাতদন্ত৷ সেখান থেকে মরদেহ নিয়ে যাওয়া রবীন্দ্রসদনে৷ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে সেখানে তাঁক গান স্যালুট দেওয়া হয়৷ এরপর তাঁর দেহ নিয়ে যাওয়া হয় মুম্বাইয়ের বাড়িতে৷ বৃহস্পতিবারেই মুম্বইয়ের ভারসোভা শ্মশানে শেষকৃত্য সম্পন্ন হয় শিল্পীর৷