Elon Musk এর অফিসে নেই বসার জায়গা, Wi-Fi সমস্যায় ভুগছেন কর্মীরা

0
12

ক্যালিফোর্নিয়া : ওয়ার্ক ফ্রম হোম ছেড়ে এবার Tesla র অফিসেই কাজ শুরু করেছেন কর্মীরা। Elon Musk এর নির্দেশ মতোই বছর দুই পরে অফিসে এসে কাজ শুরু করেছেন তাঁরা। কিন্তু ওয়ার্ক ফ্রম হোম ছেড়ে অফিসে কাজ করা দুষ্কর হয়ে উঠেছে  Teslaর কর্মীদের কাছে। জানা যাচ্ছে, ডেস্ক থেকে পার্কি স্পট কিছুই নেই পর্যাপ্ত, অর্থাৎ কর্মী তো রয়েছেন অনেক কিন্তু অফিসে বসে কাজ করার জায়গা পাচ্ছেন না তাঁরা। Elon Musk এর কোম্পানিতে এইরকম হাল দেখে হতবাক নেটিজেনরা।

ভাবা যায়! Teslaর মতো কোম্পানিতেও নাকি কর্মীরা পাচ্ছেন না ডেস্ক। এমনকি Wi-Fi নিয়েও সমস্যায় পড়েছেন তাঁরা। এই অবস্থার মধ্যেই মাস্ক মেলের মাধ্যমে ওয়ার্ক ফ্রম হোমের সুবিধাকে বিদায় জানিয়ে অফিসে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। সেই নির্দেশ মতোই অফিসে হাজির হয়েছেন কর্মীরা। এখনও প্রচুর টেক কোম্পানি ওয়ার্ক ফ্রম হোমে নির্ভর করলেও মাস্ক স্পষ্ট জানিয়েছেন, সপ্তাহে কমপক্ষে ৪০ ঘন্টা অফিস থেকেই কাজ করতে হবে, যারা করবেন না তাঁরা চাকরি খোয়াতেও পারেন। এমনকি যদি উপস্থিত না হন তবে ধরে নেওয়া হবে তাঁরা চাকরি থেকে ইস্তফা দিয়েছেন।

মাস্কের আদেশ মতোই অফিসে হাজির হলেন কর্মীরা। কিন্তু কর্মচারীদের পর্যাপ্ত সুবিধা দিতে পারছে না মাক্সের কোম্পানি। কর্মীরা জানিয়েছেন, করোনা মহামারীর সময়ে প্রচুর নিয়োগ হয়েছে, যে কারণে এখন Teslaর অফিসে ডেস্ক পর্যন্ত পাওয়া মুশকিল হচ্ছে। পাশাপ্আশি পার্কিয়ের জায়গাও পাচ্ছেন না তাঁরা। সূত্রের খবর অনুযায়ী, কর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়ে অভিযোগ করেছেন, যে তাঁরা ডেস্ক, পার্কি স্পট এমনকি ঠিকমতো Wi-Fiও পাচ্ছেন না।

উল্লেখ্য, ২০১৯ থেকে ২০২১ এর মধ্যে এই কোম্পানিতে কর্মচারীর সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। এখন কর্মীদের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯৯,২১০। কোম্পানির বৃহত্তম ফ্যাক্টরি মুখ্য স্থান হল ফারমন্টের টেসলা অফিস। যেখানে কর্মীর সংখ্যা ২০.০০০ এরও বেশি। আরও বেশ কিছু কর্মীরা কাছাকাছিই অবস্থিত কর্পোরেট অফিসে কাজ করেন।