দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের আঁচ রাশিয়ায়: সবাইকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিলেন পুতিন

0
31
Putin

খাস ডেস্ক: দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এই প্রথম সৈন্যযোজন করতে চলেছে রাশিয়া। দেশের সমস্ত রিজার্ভড নাগরিক, যারা পূর্বে সেনাবাহিনীতে কাজ করেছেন এবং বর্তমানে যারা সেনাবাহিনীতে রয়েছেন, পাশাপাশি যাদের ন্যুনতম অভিজ্ঞতা রয়েছে, তাঁদেরকে একত্রিত করার ডাক দিলেন রুশ-রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন (Putin)। প্রায় ৩ লক্ষ রিজার্ভকে একত্রিত করার ডাক দিয়েছেন তিনি। তাহলে কি এবার ইউক্রেনের ওপর আরও তীব্র হামলার ছক কষছেন তিনি?

বলা বাহুল্য, বুধবার একটি টেলিভিশন বার্তায় এমনটাই ইঙ্গিত দিলেন পুতিন। “আমি কোনও মজা করছি না” বলে পাশ্চাত্য দেশগুলোকে তীব্র শাসানি দেন তিনি। পুতিন বলেন, “পাশ্চাত্য দেশগুলো যদি পারমাণবিক অস্ত্র নিয়ে আমাকে শাসানি দেয়, তাহলে রাশিয়াও তার জবাব দেবে”, বলে আক্রমণ করেন পুতিন। পাশাপাশি, হুমকির সুরে তিনি বলেন, “আমাদের সীমান্তে যদি কোনরকম অপ্রীতিকর ঘটনা দেখি তাহলে রাশিয়ার মানুষ কিছু ছেড়ে কথা বলবে না”।

- Advertisement -

আরও পড়ুন- মমতার পদত্যাগ চেয়ে বিধানসভায় শুভেন্দুর হুঙ্কার

পাশাপাশি, পাশ্চাত্য দেশগুলোকে শায়েস্তা করতে রাশিয়ার কাছে যথেষ্ট অস্ত্র মজুত আছে বলে উল্লেখ করেন তিনি। পাশ্চাত্য দেশগুলির কথা উল্লেখ করে মূলত যে তিনি ইউক্রেনের প্রতি কড়া বার্তা দিলেন তা বলাই বাহুল্য। পুতিনের শাসানিতে অস্বস্তিতে পড়েছে ব্রিটেন। এদিন ব্রিটিশ বিদেশমন্ত্রী গিলিয়ান কিগাম বলেন, “আমাদের সতর্ক হওয়া উচিৎ। কেননা, এর সুদূরপ্রসারী প্রভাব পড়তে পারে”।

উল্লেখ্য, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের জেরে সমস্যায় পড়েছে বিশ্বের একাধিক দেশ। ইতিমধ্যেই যুদ্ধের কারণে সমগ্র বিশ্বে জ্বালানী এবং খাবারের দাম বেড়ে গিয়েছে। যার প্রভাব পড়েছে ভারতেও। দিনকয়েক আগে সামারকান্দে SCO সম্মেলনে গিয়ে পুতিনের (Putin) সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। যুদ্ধ বন্ধ করে শান্তিস্থাপন করার পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি। তবে, সেই পরামর্শ খুব একটা ফলপ্রসূ হল না বলেই এখন মনে করা হচ্ছে।