Indian Army -তে প্রত্যাখ্যাত, ইউক্রেনে রাশিয়ার বিরুদ্ধে অস্ত্র তুলে নিলেন ভারতীয় যুবক

0
23
rejected by Indian Army, now the young man took up arms against Russia in Ukraine

স্পোর্টস ডেস্ক: ইউক্রেন রাশিয়ার যুদ্ধপরিস্থিতিতে উত্তপ্ত বিশ্বের অন্যান্য দেশও। রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে চলমান যুদ্ধের মধ্যেও অনেক ঘটনাই সামনে আসছে। একটি প্রতিবেদনের মাধ্যমে জানা গিয়েছে যে, এক ভারতীয় যুবক ইউক্রেনের হয়ে যুদ্ধে লড়ছেন। তামিলনাড়ুর কোয়েম্বাটুরের ছেলে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে ইউক্রেনের সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছেন। শুধু তাই নয়, এই ছেলেটির সম্পর্কে এমন তথ্যও সামনে এসেছে যে অনেক আগে তিনি ভারতীয় সেনাবাহিনীর (Indian Army) নিয়োগ প্রক্রিয়ায় দুইবার প্রত্যাখ্যাত হয়েছেন।

সারাদিনের সমস্ত খবরের আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন খাস খবর অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ: https://play.google.com/store/apps/details?id=app.aartsspl.khaskhobor

- Advertisement -

ওই যুবক ইউক্রেনে থাকার সময় এই সব ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছিল। জানা গিয়েছে, ওই যুবকের নাম সৈনিকেশ রবিচন্দ্রন। তিনি পড়াশোনার জন্য ২০১৮ সালে ইউক্রেনে গিয়েছিলেন। ২১ বছর বয়সী সৈনিকেশ খারকিভের জাতীয় অ্যারোস্পেস ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র। চলতি বছরের জুলাইয়ে তার পড়াশোনা শেষ করার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা চালালে তিনি সেই দেশের সেনাবাহিনীতে যোগ দেন।

কয়েকদিন আগে সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্স ব্যুরোর কর্মকর্তারা ইউক্রেনের সেনাবাহিনীতে যোগদানের উদ্দেশ্য বোঝার জন্য তার বাবা-মাকে প্রশ্ন করেছিলেন। এই বিষয়ে আরও তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে। পুলিশ রিপোর্ট অনুসারে, ছেলেটির পরিবার মিডিয়া রিপোর্টের মাধ্যমে জানানো হয়েছিল যে তাদের ছেলে ইউক্রেনের হয়ে লড়াই করার জন্য একটি আধাসামরিক শাখায় যোগ দিয়েছে। পরিবার গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের জানিয়েছিল যে, ছেলে সব সময়ই সামরিক বাহিনীর প্রতি অনুরাগী ছিল।

আরও পড়ুন: Pak vs Aus : রাওয়ালপিন্ডির ‘মৃত পিচ’ আইসিসির নজরে

পরিবার আরও জানিয়েছে যে, সেনাবাহিনীর জন্য কাজ করার ইচ্ছা নিয়ে তিনি ভারতীয় সেনাবাহিনীতে (Indian Army) দুইবার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু তার উচ্চতার কারণে ভারতীয় সেনাবাহিনী তাকে দু’বারই প্রত্যাখ্যান করেছিল। ঘরের দেওয়ালে সাঁটানো ছিল সৈন্যদের ছবি। শুধু তাই নয়, চেন্নাইয়ের মার্কিন কনস্যুলেটে মার্কিন সেনাবাহিনীতে যোগ দেওয়ার জন্যও তিনি করেছিলেন, কিন্তু তাও সম্ভব হয়নি।

বিস্তারিত খবর, লাইভ ভিডিও সহ সমস্ত রকম আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ: https://www.facebook.com/khaskhobor2020