চিনের সঙ্গে দীর্ঘদিনের দ্বন্দ্বকেই উস্কে দিল Nancy Pelosiর তাইওয়ান সফর

0
23

খাস ডেস্ক : মার্কিন হাউসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি মঙ্গলবারই তাইপেই তে পৌঁছন। তাইওয়ানের পাশে থাকার বার্তা দিতে চিনের আপত্তি সত্ত্বেও হাজির হন ন্যান্সি। তাইওয়ানকে ঘিরে চিন ও মার্কিন দ্বন্দ্ব তুঙ্গে উঠেছে। কিন্তু পেলোসির তাইওয়ান সফর নিয়ে এত আপত্তির কারণ কি চিনের? চিন সহজ চোখে দেখছে না এই সফর। কিন্তু ইতিহাস বলছে অন্য কথা। ন্যান্সি পেলোসির সঙ্গে চিনের দ্বন্দ্ব আজকের নয়। ইতিহাস বলছে বারবার এই দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এসেছে। চিনের বিরুদ্ধে বারবার উঠে দাঁড়িয়েছেন ন্যান্সি পেলোসি।

কংগ্রেসে তাঁর কেরিয়ারের শুরুর সময় থেকেই চিনের বিরুদ্ধে বারবার পদক্ষেপ নিতে দেখা গিয়েছে ন্যান্সিকে। ১৯৯১ সালের জুন মাসে একটি জনসভায় কথা বলছেন ন্যান্সি, হাতে রয়েছে একটি হাতঘড়ি। তিনি বলছেন, ১৯৮৯ সালে তিয়ানামেন স্কোয়ার বিক্ষোভকারীদের দমন করা সেনাদের এই হাতঘড়ি দেওয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে, বেআইনিভাবে এই ঘড়িটি চিনের বাইরে আনা হয়েছিল।

একটি ছবিতে দেখা গিয়েছে, পেলোসি এবং অন্যান্য মার্কিন প্রতিনিধি বেন জোনস ও জন মিলার তিনজনে মিলে একটি ব্যানার খুলছেন। ১৯৯১ সালের সেপ্টেম্বর মাসের বেইজিং সফরের একটি ভিডিও থেকে পাওয়া গিয়েছে এই ছবি। হাতে ধরা ওই ব্যানারে লেখা রয়েছে, ‘তাঁদের জন্য যারা চিনের গণতন্ত্রের জন্য মৃত্যুবরণ করেছেন’।

এমন আরও একটি চিত্র ফুটে ওঠে ১৯৯৬ সালের মে মাসে। একটি সাংবাদিক সম্মেলনের সময়ে একতি বিলের নির্দিষ্ট সেকশন বিস্তরে জানাচ্ছেন তিনি। যে বিল মার্কিল কপিরাইট উলঙ্ঘনের জন্য চিনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পেলোসি মার্কিন সফটওয়্যারকে নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য এই চিনের বিরুদ্ধে বিলটি নিয়ে চাপ সৃষ্টি করেছিল তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনকে। অর্থাৎ দেখা গিয়েছে, পেলোসি চিন দ্বন্দ্ব আজকের বিষয় নয়। বহুদিন ধরেই এই দ্বন্দ্ব চলেই যাচ্ছে।