থানার মধ্যে পুলিশের সামনেই আত্মহত্যার চেষ্টা গৃহবধূর

0
19

খাস খবর ডেস্ক: থানার ভেতর একঘর পুলিশ। উপস্থিত রয়েছে স্বামীও। এদের সকলের সামনে আত্মহত্যার চেষ্টা করলেন জনৈকা গৃহবধূ। তিনি বিষপান করেন।

খাস খবর ফেসবুক পেজের লিঙ্ক:
https://www.facebook.com/khaskhobor2020/

ঘটনাটি ঘটেছে বাংলাদেশের লালমনিরহাট জেলার অন্তর্ভুক্ত আদিতমারী উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের শঠিবাড়ী অঞ্চলে। উক্ত মহিলার নাম সাবিনা ইয়াসমিন (২৩)। তাঁকে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। জানা যাচ্ছে, বছর দুই আগে সাবিনার সঙ্গে তাঁর স্বামী রুবেল মিঞা।

রুবেলের আরও একটি বিয়ে আছে আগে। প্রথম পক্ষের বিয়ে থাকা সত্ত্বেও সাবিনাকে বিয়ে করেন তিনি। এ নিয়ে সংসারে অশান্তির সীমা ছিল না। শেষে কৌশলে সাবিনাকে তাঁর বাপের বাড়িতে রেখে আসেন রুবেল। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, দ্বিতীয়া স্ত্রীয়ের খোঁজও নিতেন না রুবেল।

এরপর বৃহস্পতিবার দুপুরে সাবিনাকে কথা বলার জন্য ভাদাই ইউনিয়নের শিববাড়ি এলাকায় ডেকে পাঠান তাঁর স্বামী। এখানেই দুজনের মধ্যে ফের ঝগড়া শুরু হলে পুলিশ ডাকেন স্থানীয়রা। এরপর পুলিশ এসে দুজনকে থানায় নিয়ে গেলে সেখানেই বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন সাবিনা। জানা যাচ্ছে, সাবিনা স্বামীর ঘরে ফিরে যাওয়ার জন্য বায়না ধরেছিলেন।

আরও পড়ুন: শহর ঢেকে যাচ্ছে প্রাণঘাতী বিষাক্ত ফেনায়, দেখলে মনে হবে যেন শৈল শহর

কিন্তু রুবেল তা তো মানেনইনি। উল্টে তিনি সাবিনাকে তালাকের প্রস্তাব দেন। তখনই বিষ খান সাবিনা। পরে হাসপাতালে তাঁর বক্তব্য, “স্বামী তালাক দিলে এই জীবন রেখে লাভ কী? তাই বিষ খেয়েছি। কিন্তু পুলিশ মরতে দিল না। স্বামী ছেড়ে দিলে আমি আত্মহত্যা করব।” অন্যদিকে স্বামী রুবেলের কথায়, “আপাতত দু’জনে নিজ নিজ বাড়িতেই ফিরব। তালাক দিচ্ছি না।”