কর্তব্যরত সিভিক ভলেন্টিয়াকে প্রাণঘাতী হামলার অভিযোগে গ্রেফতার যুবক

0
160

মারিশদা: কর্তব্যরত ট্রাফিক অবস্থায় সিভিক ভলেন্টিয়ারকে প্রাণঘাতী হামলা ও হেনস্থা করার অভিযোগে গ্রেফতার হল বাইক আরোহী যুবক। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি করেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মারিশদা। আহত সিভিক ভলেন্টিয়ারে অভিযোগের ভিত্তিতে অবশেষে অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করল মারিশদা থানার পুলিশ।

জানা গিয়েছে, ধৃত যুবক দিব্যেন্দু মাইতি। তার বাড়ি ভূপতিনগর থানার বিজয়নগর গ্রামের বাসিন্দা। সোমবার অভিযুক্তকে কাঁথি মহকুমা আদালতে তোলা হয়। বিচারক তার জামিন নাকচ করে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন। রক্তাক্ত জখম সিভিক ভলেন্টিয়ার স্থানীয় একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

- Advertisement -

আরও পড়ুন- “খুব দেরি হওয়ার আগে আসুন” রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীকে নিয়ে বিজেপি নেতার টুইট ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে

পুলিশ সূত্রে খবর, রবিবার বিকালে দিঘা নন্দকুমার ১১৬ বি জাতীয় সড়কের কালিনগর সংলগ্ন এলাকায় ট্রাপিকের ডিউটি করছিল মারিশদার এক এক সিভিক ভলেন্টিয়ার চিরঞ্জিত ভূঁইয়া। চার মাথায় রাস্তার মোড়ো গাড়ি আটকে রাস্তা পারাপার করেছিল সিভিক ভলেন্টিয়ার। কাঁথি দিকে আসছিল ভূপতিনগরে বিজয়নগর গ্রামের বাসিন্দা দিব্যেন্দু মাইতি।

বাইক বেশিক্ষণ আটকানো হয়েছে বলে অভিযোগ তুলে সিভিক ভলেন্টিয়ার উপর চড়াও হয় ওই যুবক বলে অভিযোগ। মাথা থেকে হেলমেট খুলে সিভিক ভলেন্টিয়ারে মাথায় সজরে আঘাত করে। রক্তাক্ত জখম হয় ওই সিভিক ভলেন্টিয়ার। এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারা ছুটে এসে আহত সিভিক ভলেন্টিয়ারকে উদ্ধার করে ও বাইক আরোহী যুবককে পাকড়াও করে।

আরও পড়ুন- নিয়োগ দুর্নীতির প্রতিবাদে রাজপথে বুদ্ধিজীবীরা

এই ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় মারিসদা থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। আহত সিভিক ভলেন্টিয়ারে সব রকমের চিকিৎসা ব্যবস্থা করেন। বাইক সহ ওই যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। পরে সিভিক ভলেন্টিয়ার চিরঞ্জিত ভূঁইয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযুক্ত এই পুলিশ তদন্ত নেমে এরপর ওই বাইক আরোহী ওই যুবককে গ্রেফতার করে।

মারিশদা থানার ওসি রাজু কুণ্ডু বলেন, “অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত নেমে ওই যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুরো ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।”