লটারি টিকিট জাল করে টাকা আত্মসাৎ, গ্রেফতার প্রতারক মহিলা

0
90

রামনগর: খবরের কাগজ খুললেই দেখা যায় লটারির বিজ্ঞাপন৷ প্রতিদিনই রাজ্যের কোনও না কোনও প্রান্তের মানুষ কোটি পতি হচ্ছেন লটারির টিকিট কেটে৷ এবার সেই, লটারি জাল করে টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগে গ্রেফতার হল ভিন জেলার এক প্রতারক মহিলা। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার রামনগর থানার এলাকায়। বুধবার অভিযুক্তকে কাঁথি মহকুমা আদালতে তোলা হয়। বিচারক তার জামিন নাকচ করে দেন।

আরও পড়ুনঃ জিন্না টাওয়ারের নাম বদলে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির নামে রাখার দাবি বিজেপির

জানা গিয়েছে, ভিন জেলা তথা দক্ষিণ ২৪ পরগনা থেকে এসে পূর্ব মেদিনীপুরে প্রতারণার ফাঁদ পেতে বসে ছিল বেশ কয়েকজন যুবক সহ মহিলারা। খুবই অভিনব উপায়ে ডিয়ার লটারির নম্বর মুহূর্তের মধ্যে জাল করে দোকানদার তথা লটারি টিকিট কাউন্টারে গিয়ে হাজির হত ওই মহিলা। দোকানদার তথা ডিস্ট্রিবিউটার কাছে কেউ জানাতে দিঘা বেড়াতে এসে লটারি টিকিট কেটে ছিলেন। সেই নম্বরে তার টাকা লেগেছে। আপনি এই লটারিটি রেখে যদি টাকাটা দেন তাহলে খুবই উপকৃত হবো। সেই মতন ওই মহিলার কথায় টিকিট রেখে ওই মহিলাকে টাকা দিয়ে দিতেন দোকানদাররাও।

আরও পড়ুনঃ ইতিহাসে প্রথম মহিলা হিসাবে ভারতীয় বায়ুসেনার সেনার এই বিশেষ পদের অফিসার হলেন ক্যাপ্টেন অভিলাশা বারাক

কিন্তু, তারপরই দোকানদার জানতে পারেন সেই লটারির টিকিটটি জাল। পরে দোকানদার রামনগর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পেয়ে নড়েচড়ে বসে রামনগর থানার পুলিশ। দ্রুত তদন্তে নেমে কাঁথি থেকে অভিযান চালিয়ে ওই মহিলাকে গ্রেফতার করে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত মহিলা গোসিয়া খাতুন। বাড়ি দক্ষিণ পরগনা জেলায় এলাকায়।

রামনগর থানার ওসি সৌরভ চিননা বলেন, ‘অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে ওই মহিলাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে আরও কারা কারা যুক্ত রয়েছে সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যদিও তদন্তের কারণে বেশি কিছু তথ্য জানাতে রাজি হয়নি তিনী।’