স্বামীর ঘর করতে পুলিশ নিয়ে হাজির, সুফল না পেয়ে ধর্নায় স্ত্রী

0
19

খাস ডেস্ক: স্বামীর ঘর করতে চেয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিলেন স্ত্রী। কিন্তু কোনও লাভ না হওয়ায় শেষে বাধ্য হয়ে ধর্নায় বসলেন তিনি। খবর জানাজানি হতেই ভিড় জমে এলাকায়। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে ফালাকাটা ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের দেশবন্ধুপাড়ায়।

আরও পড়ুন: Shah Rukh Khan: বলিউডে ‘বাদশা’র ৩০ বছর, ভক্তদের দিলেন বিশেষ উপহার

জানা গিয়েছে, ২০২০ সালে ফালাকাটা দেশবন্ধুপাড়ার বাসিন্দা মিঠুন সাহার সঙ্গে সামাজিক মতে বিয়ে হয় কামাক্ষাগুড়ির বাসিন্দা ওই মহিলার। স্ত্রীয়ের অভিযোগ, বিয়ের রাত থেকেই শ্বশুরবাড়ির লোকেরা তাঁর উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করত। স্বামী সহ শ্বশুর, শাশুড়ি, ননদ সবাই অত্যাচার করত। এরপর থানায় অভিযোগ জানানো হলেও বিষয়টির মিটমাট করা যায়নি। নির্যাতিতা ওই মহিলাকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ। স্বামীর সঙ্গে ঘর করতে চেয়ে পুলিশ নিয়ে হাজির হয় শ্বশুরবাড়িতে। কিন্তু সেই প্রচেষ্টা বিফলে যায়। এরপর নিজের দাবি নিয়ে প্ল্যাকার্ড হাতে শ্বশুরবাড়ির সামনেই ধর্নায় বসেন তিনি। ওই মহিলা বলেন, ‘আমার কাছে কোর্টের অর্ডার আছে। এদিন পুলিশ নিয়ে এসেও শ্বশুর বাড়িতে ঢুকতে চাই। কিন্তু আমাকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। তাই ধরনায় বসেছি। আমি স্বামীর সাথে সংসার করতে চাই। যতক্ষণ না আমাকে মেনে নিচ্ছে ততক্ষণ ধর্না চালিয়ে যাব।’

আরও পড়ুন: Debalina Dey : আত্মহননের পথে অভিনেত্রী, মাঝরাতে বাঁচাতে তৎপর হলেন Sandy Saha

ঘটনা সম্বন্ধে জানতে পেরে পুরসভার ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মনোজ সাহা সেখানে যান। মহিলা এবং তাঁর শ্বশুরবাড়ির সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি সমাধান করার চেষ্টা করেন তিনি।