“সঠিক সময়ে মহার্ঘ ভাতা দেবেন মুখ্যমন্ত্রী”, আশ্বাস শোভনদেবের

0
26
mamata sovondeb chatterjee

কলকাতা : “সঠিক সময় মুখ্যমন্ত্রী সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা (DA) দেবেন। মমতা চান সরকারি কর্মীরা ভাতা পান। তবে মুখ্যমন্ত্রীকে সাধারণ মানুষের কথাও ভাবতে হয়।” এইভাবেই সরকারি কর্মচারীদের আশ্বস্ত করতে চাইলেন মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় (Sovondeb chatterjee)। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের সাধারণ মানুষের কথা ভেবে বেশ কিছু প্রকল্প চালু করেছেন। কন্যাশ্রী, রুপশ্রী, পথশ্রী, লক্ষ্মীভাণ্ডার। এদিন নাম না করে মূলত এই প্রকল্পগুলির কথা বোঝাতে চাইলেন শোভনদেব।

আরও পড়ুন : ডেঙ্গুর কোপে TMC সাংসদের আড়াই বছরের মেয়ে ও স্বামী, বাংলাজুড়ে ক্রমেই বাড়ছে উদ্বেগ

- Advertisement -

মুখ্যমন্ত্রীর মানবিক দিকের কথা তুলে ধরে শোভনদেব আরও বললেন, ‘‘যাঁরা ডিএ পাচ্ছেন না, তাঁরা দু’বেলা দু’মুঠো খেতে পান। কিন্তু যাঁদের জন্য মুখ্যমন্ত্রী প্রকল্পগুলি করেছেন, তাঁরা প্রতিদিন বাজারে যেতে পারেন না। দু’বেলা হয়তো ঠিক মতো খেতেও পান না। তাই মুখ্যমন্ত্রী সেই সব মানুষের কথাও ভাবছেন।’’শোভনদেবের এই ধরনের মন্তব্যে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন, রাজ্য কো-অর্ডিনেশন কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিজয়শঙ্কর সিংহ বলেন, ‘‘আমরা রাজ্য সরকারের হলফনামা দেখেই বুঝেছি, আমাদের আরও কঠিন লড়াইয়ের প্রস্তুতি নিতে হবে। আমরা সব রকম লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত। তাই আমাদের কাছে মন্ত্রীর বক্তব্যের কোনও যৌক্তিকতা নেই।’’

আরও পড়ুন : মধ্যবিত্তের পকেটে ছেঁকা, বছরের শেষেও চড়া মুরগির মাংসের দাম

প্রসঙ্গত কেন্দ্রের হারে ডিএ (DA) দিতে হবে রাজ্য সরকারের কর্মীদের। রাজ্য সরকারি কর্মচারি সংগঠনের এই দাবি বহুদিনের। আগেও এই নিয়ে আদালত পর্যন্ত মামলা গড়িয়েছে। এদিনও তার ব্যতিক্রম হল না। চলতি বছরের ২০ মে হাই কোর্ট নির্দেশ দিয়েছিল, তিন মাসের মধ্যে বকেয়া মহার্ঘ ভাতা মেটাতে হবে রাজ্য সরকারকে। যার জেরে রাজ্যের সরকারি কর্মীদের ৩১ শতাংশ হারে ডিএ দিতে হবে। কিন্ত সেই সময়সীমা পেরিয়ে যাওয়ার পরও ডিএ না দেওয়ায় হাই কোর্টে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করা হয়। এর মধ্যেই ডিএ নিয়ে রায় পুনর্বিবেচনার আর্জি জানিয়ে হাই কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হয় রাজ্য সরকার।ডিএ বা মহার্ঘ ভাতা (DA case) মামলায় রাজ্যের আর্জি খারিজ করে দেয় কলকাতা হাই কোর্ট। বিচারপতি হরিশ টন্ডন এবং বিচারপতি রবীন্দ্রনাথ সামন্তের ডিভিশন বেঞ্চ পূর্ব নির্দেশই বহাল রাখল।  শুক্রবার কলকাতা হাই কোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে যায় রাজ্য সরকার। এরপরই এই প্রতিক্রিয়া জানান শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় (sovondeb chatterjee)