তৃণমূল কর্মী খুনের ঘটনায় গ্রেফতার মহিলা সহ ২ যুবক

0
75

নিজস্ব সংবাদদাতা, ব্যারাকপুর: পুরসভার ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত টিটাগর জি.সি.রোড নয়াবস্তি এলাকায় তৃণমূল কর্মী আনোয়ার আলীকে গুলি করে খুন করে দুষ্কৃতিরা। আর সেই ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে টাকা সংক্রান্ত বিষয়ে এই খুনের ঘটনা। গোপন অভিযান চালিয়ে মেমারি থানার অন্তর্গত বর্ধমান থেকে অভিযুক্ত এক মহিলা সহ দুজনকে গ্রেফতার করে টিটাগড় থানার পুলিশ৷

ধৃতদের নাম মোহাম্মদ আরিফ, মোহাম্মদ সানি ও অভিযুক্ত সানির স্ত্রী শবনম বানুকে গ্রেফতার করল টিটাগর থানার পুলিশ। খুনে ব্যবহৃত স্কুটি উদ্ধার করে পুলিশ। কিন্তু খুনে ব্যবহৃত অস্ত্র এখনও পর্যন্ত উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। ঘটনার পর এই তিন জনের নামে অভিযোগ দায়ের হয়েছিল টিটাগড় থানায়।

- Advertisement -

শুক্রবার রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বর্ধমানের মেমারি থেকে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করেছে। এদের তিনজনকেই ১৪ দিনের পুলিশি হেফাজতের আবেদন জানিয়ে শনিবার ব্যারাকপুর মহকুমা আদালতে পেশ করে পুলিশ৷ এই ঘটনায় আরও কেউ যুক্ত রয়েছে কিনা, কিভাবে তারা অস্ত্র সংগ্রহ করল এই সমস্ত বিষয়ে বিশদে তদন্তের জন্যই পুলিশি হেফাজতে আবেদন করছে পুলিশ।

শনিবার ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (মধ্য) আশিস মৌর্য টিটাগড় থানায় সাংবাদিক বৈঠক করে জানান, ব্যবসায়িক লেনদেন সংক্রান্ত বিষয় নিয়েই খুন। প্রায় ৪ লক্ষ ৬২ হাজার টাকা সানির কাছে পাওনা ছিল। সেই টাকা নিতে গিয়েই খুন। শুক্রবার দুপুরে সানির স্ত্রী শবনম ফোন করে আনোয়ারকে টাকা নিয়ে যাওয়ার জন্য বলে। সেই টাকা নিতে যাওয়ার পথেই খুন হন আনোয়ার৷ দুস্কৃতিরা দলে তিন জন ছিল। আর একজনের নাম পাওয়া গিয়েছে। তাঁর খোঁজে তল্লাশি চলছে। ঘটনায় ধৃতদের মেমারি থেকে অন্য কোথাও পালানোর ছক তাদের ছিল কিনা তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে জানার চেষ্টা হচ্ছে।