বিরোধী শূন্য পঞ্চায়েত গড়তে এবার ‘দুয়ারে যোগদান’ কর্মসূচি

‘‘পার্থ চট্টোপাধ্যায়, অনুব্রত মণ্ডলদের জেলে যাওয়ার ঘটনায় এই সরকারের সততার প্রতীকের ফানুস ফুটো হয়ে গিয়েছে৷ তাই চাপ সৃষ্টি করে গ্রাম বাংলার মানুষকে তৃণমূলের পতাকাতলে নিয়ে আসার চেষ্টা হচ্ছে৷’’

0
40
Corruption Allegation Against TMC Pradhan

বাঁকুড়া ও কলকাতা: দুয়ারে সরকারের পর এবার দুয়ারে তৃণমূল (TMC)৷ বছর ঘুরলেই ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচন৷ সেদিকে খেয়াল রেখেই এবার জেলায় জেলায় এমনই কর্মসূচি নিতে চলেছে শাসকদল তৃণমূল৷ সূত্রের খবর: বিরোধীদের কুৎসা, অপপ্রচার এবং সেন্ট্রাল এজেন্সিকে দিয়ে বিজেপি সরকারের লাগাতার আক্রমণের প্রতিবাদে রাজ্যের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ রাখতেই এমন কর্মসূচি নেওয়া হচ্ছে৷ উদ্দেশ্যে, রাজ্যের উন্নয়ন অব্যহত রাখা৷ তাই ত্রিস্তরেও বিরোধীশূন্য পঞ্চায়েত গড়ার লক্ষ্যমাত্রা পূরণেই এমন কর্মসূচি৷

খোলাখুলি সেকথা স্বীকারও করে নিয়েছেন বাঁকুড়া ১ নম্বর ব্লক তৃণমূল সভাপতি অংশুমান বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তিনি বলেন, ‘‘রাজ্যে উন্নয়নের ধারা অক্ষুন্ন রাখতেই আগামীদিনে মানুষের রায় নিয়ে বিরোধীশূন্য পঞ্চায়েত করতে চাইছি। তাই এই ‘দুয়ারে যোগদান’ কর্মসূচি৷’’ যদিও শাসকদলের এমন দাবির পিছনে ‘সন্ত্রাসে’র রাজনীতি দেখছে বিরোধীরা৷ বিজেপির বাঁকুড়া-১ মন্ডল সভাপতি বিকাশ ঘোষ বলেন, ‘‘পার্থ চট্টোপাধ্যায়, অনুব্রত মণ্ডলদের জেলে যাওয়ার ঘটনায় এই সরকারের সততার প্রতীকের ফানুস ফুটো হয়ে গিয়েছে৷ তাই চাপ সৃষ্টি করে গ্রাম বাংলার মানুষকে তৃণমূলের পতাকাতলে নিয়ে আসার চেষ্টা হচ্ছে৷’’

- Advertisement -

ঘটনার সূত্রপাত, বাঁকুড়া ১ নম্বর ব্লকের ৬টি গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে ২ টি বিজেপির দখলে৷ বছর ঘুরলেই পঞ্চায়েত ভোট৷ তাই সময় থাকতেই সংশ্লিষ্ট ব্লকের আদারথোলের কুমিদ্যা গ্রামে বিজেপির ৪০টি পরিবারের সদস্যদের হাতে তৃণমূলের (TMC) পতাকা তুলে দেন নেতৃত্বরা৷ দলের ব্লক তৃণমূল সভাপতি অংশুমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘আগামীদিনে প্রতিটি গ্রামেই এভাবে সকলের হাতে তৃণমূলের পতাকা তুলে দিতে আমরা দুয়ারে যোগদান কর্মসূচি করব৷’’ দলীয় সূত্রের খবর, বাঁকুড়া দিয়ে পরীক্ষামূলকভাবে চালু হওয়া এই কর্মসূচি শীঘ্রই রাজ্যের অন্যান্য ব্লকেও শুরু হবে

আরও পড়ুন: শীর্ষ আদালতে রক্ষাকবচ, এখনই গ্রেফতার নয় অভিষেককে

downloads: https://play.google.com/store/apps/details?id=app.aartsspl.khaskhobor