বধূ নির্যাতনের মামলা না তোলায় খুন করে খালের পাশে পুঁতে দেওয়া হল দেহ

0
54

খাস প্রতিবেদন: মহিলাকে ডেকে নিয়ে গিয়ে খুন করে খালের পাশে পুঁতে দেওয়া হল দেহ। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগণার অশোকনগরে। অভিযোগ পাওয়ার পরই সোমবার সকালে ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে মাটি খুঁড়ে উদ্ধার করা হল‌ মৃতদেহ। ঘটনায় ইতিমধ্যে নিহত মহিলার স্বামী, শাশুড়ি সহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুরো ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে সংশ্লিষ্ট এলাকায়৷

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত মহিলার নাম মঞ্জুরা বিবি (৪০)। স্থানীয় সূত্রে পুলিশ জানতে পেরেছে, শ্বশুরবাড়ির অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে গত ১৫ বছর ধরে বাপের বাড়িতেই থাকতেন মঞ্জুরা৷ আদালতে চলছিল বধূ নির্যাতনের মামলা৷ অভিযোগ, মামলা তোলার জন্য এর আগেও মঞ্জুরার ওপর চাপ দেওয়া হচ্ছিল শ্বশুরবাড়ির তরফে৷ মৃত মহিলার বাপের বাড়ির সদস্যদের দাবি, গত বুধবার মৃতার শাশুড়ি ১৫ বছর ধরে বাপের বাড়িতে থাকা মঞ্জুরাকে নিজের বাড়িতে ডেকে পাঠায়। তারপর থেকে তাঁর আর খবর পাওয়া যায়নি ।

- Advertisement -

বৃহস্পতিবার মঞ্জুরার বাপের বাড়ির তরফে অশোকনগর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। শনিবার দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার মইপিট কোস্টাল থানা এলাকা থেকে মৃতার স্বামী ও তার এক বন্ধুকে গ্রেফতার করে পুলিশ। অশোকনগরের ভুরকুন্ডার চাপড়া এলাকার বাড়ি থেকে শাশুড়িকে গ্রেফতার করে। মৃত মহিলার বাড়ি অশোকনগরের ভাতছালা এলাকায়৷ পুলিশের দাবি, টানা জেরার মুখে ধৃতরা ভেঙে পড়ে খুনের কথা স্বীকার করে৷ এরপরই ম্যাজিসট্রেটের উপস্থিতিতে আজ মাটি খুঁড়ে উদ্ধার করা হয় দেহ৷ ইতিমধ্যে দেহটি ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ৷

আরও পড়ুন: পুলিশি নিস্ক্রিয়তার অভিযোগ, তেতে উঠছে তিলজলা, সাত বছরের শিশুকন্যাকে যৌন নির্যাতন করে খুনের অভিযোগ