জামাইষষ্ঠী সারতে শ্বশুরবাড়ি গিয়েছিলেন জামাই, সুযোগের স্বদ্ব্যবহার করল চোর

0
32

সুদেষ্ণা মণ্ডল, কুলপি: জামাইষষ্ঠীর আনন্দে মেতেছিল আপমর বাঙালি। নিজের বাড়ি থেকে সপরিবারে শ্বশুর বাড়িতে পাড়ি দিয়েছিল কনেকেই। সেই সুযোগ কাজে লাগল চোর। সুযোগ পেয়ে এলাকার একটি বাড়ি ও মন্দিরে কার্যত লুটপাট চালিয়ে সাফ করে দিল চোর বাবাজীবন। এমনই ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার কুল্পি থানার অন্তর্গত কেশবনগর এলাকায়।

আরও পড়ুন: নিছকই দুর্ঘটনা? অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা রামনগরের প্রাক্তন বিধায়ক তথা বিজেপি নেতার

- Advertisement -

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার জামাইষষ্ঠীর দিন এলাকার বাসিন্দা রামপ্রসাদ মণ্ডল সপরিবারে গিয়েছিল শ্বশুরবাড়িতে৷ গেরস্থের ঘর খালির সেই ‘খবর’ পৌঁছেছিল চোরের কাছে৷ ফলে সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে সময় নষ্ট করেনি সে৷ ফাঁকা বাড়িতে হানা দিয়ে ঘরের আলমারি ভেঙে নগদ পঞ্চাশ হাজার টাকা ও বেশ কিছু সোনা, রুপোর গয়না নিয়ে চম্পট দেয় চোর।

আরও পড়ুন: ‘তুমি মহারাজ সাধু হলে আজ, আমি আজ চোর বটে’

শ্বশুরবাড়ির ভুরিভোজ সেরে জুম্মাবারের সকালে স্ত্রীকে নিয়ে বাড়ি ফেরেন রামপ্রসাদ। রামপ্রসাদের কথায়, ‘‘জামাইষষ্ঠীর দিনে সপরিবারে পাশের গ্রামেই শ্বশুরবাড়িতে গিয়েছিলাম জামাই ষষ্ঠী করতে। তারপর বাড়িতে ফিরে দেখি না এই অবস্থা! নগদ বেশ কিছু টাকা ও সোনা রুপোর গয়না নিয়ে চম্পট দিয়েছে চোর।’’ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় কুলপি থানার পুলিশ৷

আরও পড়ুন: চুপ চাপ আপে ছাপ, বাংলার গ্রামাঞ্চলে মমতার ভিত নড়াতে কেজরিওয়ালের নয়া কৌশল

শুধুমাত্র রামপ্রসাদের বাড়ি নয়! ফাঁকা এলাকার সুযোগ নিয়ে এলাকার দুটি মন্দিরেও চুরি করে চোর। মন্দিরের প্রণামী বাক্স ভেঙে ও বিগ্রহের সোনার রূপ ও অলংকার মিলিয়ে প্রায় লক্ষাধিক টাকার জিনিস নিয়ে চম্পট দেয় চোর। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্বাভাবিকভাবেই শুক্রবার এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। কিভাবে এই চুরির ঘটনা ঘটেছে তা নিয়ে হতবাক কেশবনগর এলাকার বাসিন্দারা। ঘটনার নেপথ্যে স্থানীয়দের একাংশের যোগসাজশের সম্ভবনাও উড়িয়ে দিচ্ছে না পুলিশ৷ পুলিশ জানিয়েছে, তদন্তে সবকিছুই খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷

আরও পড়ুন: ‘যদুবংশ ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে, উনি ভাইপোকে বাঁচাতে ব্যস্ত’: Dilip Ghosh

আরও পড়ুন: Horoscope Today : আপনার জীবনে দ্বিতীয় নারীর প্রবেশ! রইল বিস্তারিত