26 C
Kolkata
Saturday, June 19, 2021
Home জেলার খবর দুর্গতদের সাহায্যের অছিলায় ত্রাণের নামে 'মোচ্ছব' চলছে সুন্দরবনে

দুর্গতদের সাহায্যের অছিলায় ত্রাণের নামে ‘মোচ্ছব’ চলছে সুন্দরবনে

করোনা নিয়ে প্রতিকূলতা ছিলই। এরপরে দক্ষিণবঙ্গের বুকে আছড়ে পড়েছে ঘূর্ণি ঝড় ইয়াস। উপকূলবর্তী সুন্দরবন এই সকল ঝড়ের কারণে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে থাকে।

খাস খবর ডেস্ক: করোনা নিয়ে প্রতিকূলতা ছিলই। এরপরে দক্ষিণবঙ্গের বুকে আছড়ে পড়েছে ঘূর্ণি ঝড় ইয়াস। উপকূলবর্তী সুন্দরবন এই সকল ঝড়ের কারণে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে থাকে। ইয়াসের প্রকোপও বেশ ভালোই পড়েছে সুন্দরবন লাগোয়া এলাকায়। আর সেই সুবাদেই ওই এলাকায় শুরু হয়ে গিয়েছে ত্রাণ উৎসব বা ত্রাণ ট্যুরিজম।

- Advertisement -

আরও পড়ুন- মেয়েদের ফোন দেওয়া উচিৎ নয়, ওতে ধর্ষণ বাড়ে, মহিলা কমিশনের মন্তব্যে নিন্দার ঝড়

নিত্যদিন গাড়িতে করে ত্রাণ যাচ্ছে ডায়মন্ড হারবার রোড ধরে। রাজ্যের নানান প্রান্ত থেকে আসছে সেই সকল ত্রাণের গাড়ি। কখনও ছোত হাতি আবার কখনও বাসে করে ৬০-৭০ জন যাচ্ছেন সুন্দরবন এলাকায় ত্রাণ দিতে। রবিবার সেই গাড়ির সংখ্যা কয়েকগুণ বেড়ে যায়। গত তিন সপ্তাহে এই ছবি দেখে অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছে তারাতলা বা বেহালার লোকজন।

- Advertisement -

আরও পড়ুন- রাত পোহালেই ভরা কটাল, জলোচ্ছাসের আতঙ্কে কাঁপছে সুন্দরবন

ত্রাণ দিতে যাওয়ার সময়ে অনেক ক্ষেত্রেই মানা হচ্ছে না করোনা বিধি। উপেক্ষা করা হচ্ছে ট্রাফিক আইন। গাড়ির মধ্যে চলছে নাচানাচি। কিন্তু গাড়ির সামনে ইয়াসের ত্রাণ লেখা দেখে ছেড়ে দিচ্ছে পুলিশ। কখনও আবার রাজনৈতিক দলের পতাকা দেখিয়ে বিশৃঙ্খলার অলিখিত লাইসেন্স পাওয়া যাচ্ছে। শহর ছেড়ে গ্রামের দিকে ঢুকলে বোঝা যায় প্রকৃত অবস্থা। সাহায্যের নামে ঠিক কী হচ্ছে নিজের চোখে না দেখলে তা উপলব্ধি করা দুষ্কর।

আরও পড়ুন- ‘বিস্ময়কর’ ব্যাকটেরিয়ায় জেরে প্রায় ৭৭ শতাংশ কমবে ডেঙ্গুর প্রকোপ

- Advertisement -

বেহালা পার করে গদখালি ঘাটে পৌঁছালে বেশ বোঝা যায় ত্রাণের নামে ঠিক কী চলছে! একটি একটি দল ত্রাণ নিয়ে সেখানে পৌঁছাতেই এসে ধরছেন জনা কয়েক লোক। ঠিক যেমন মন্দিরের সামনে ফুল-ধূপকাঠি বা প্যারার দোকানের এজেন্ট চলে আসে। তেমনই সুন্দরবনের কাছাকাছি গেলেই ত্রাণের গাড়ির সামনে চলে আসছে ত্রাণ এজেন্ট। সকলেরই বক্তব্য, “দাদা, আমার কাছে ভালো গ্রাম আছে, তাকে থামিয়ে দিয়ে আর এক জনের দাবি তার কাছে ভালো গ্রাম আছে যারা নাকি কিছু পাইনি খুব ত্রাণের দরকার।”

গ্রামের মধ্যে যাওয়ার জন্য নৌকার ব্যবস্থাও ওই ত্রাণ এজেন্টই করে দিচ্ছেন। একই সঙ্গে ত্রাণ নিয়ে যাওয়া ব্যক্তিদের জন্য কম খরচে ইলিশ, চিংড়ি, ভেটকি বা চিকেন ব্যবস্থা করে দেওয়ার টোপও দিচ্ছেন ওই এজেন্টরা। নৌকায় চড়ে গন্তব্যে পৌঁছে কিছু মানুষের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে ত্রাণের সামগ্রী। যাদের দেখেই প্রতিকূল অবস্থার কথা বোঝা যায়। সেই ত্রাণ বিলির মুহূর্তের ছবি ক্যামেরাবন্দি করতে কেউ ভুলছে না। সেটাই মূল লক্ষ্য। সেই ছবি তুলে দেওয়ার দায়িত্বও অনেক সময় নিয়ে নিচ্ছেন ত্রাণ এজেন্টরা। কেউ কেউ এবার ছবি তোলার জন্য চিত্রগ্রাহকও নিয়ে যাচ্ছেন।

আরও পড়ুন- অনুপ্রবেশের সময় মালদহে বিএসএফের হাতে ধরা পড়ল চিনা নাগরিক

কিছু ত্রাণ বিলি হতেই এজেন্টদের পক্ষ থেকে প্রস্তাব দেওয়া হচ্ছে, “আরও ভিতরে অনেক গ্রাম আছে। সেখানে এখনও কিছুই পৌঁছায়নি। বাকি ত্রাণ আমাদের দিয়ে দিন, আমরাই ওই সব গ্রামবাসীদের কাছে পৌঁছে দেব।”

এরপরেই শুরু হয় ট্যুরিজম। ত্রাণ বিলির গোটাকয়েক ছবি উঠলেই ক্লান্তি নেমে আসে ত্রাণ নিয়ে যাওয়া ব্যক্তিদের শরীরে। সেই সঙ্গে নাকে ঢুকে যায় চিংড়ি-চিকেনের গন্ধ। সেই সিবকিছুর ব্যবস্থা করে দেয় ওই ত্রাণ এজেন্টরাই। সুলভ মূল্যে সুন্দরবনের নানাবিধ মাছ এবং সেগুলির নানান পদ পাওয়া যায়। সেই সঙ্গে ত্রাণ নিয়ে যাওয়া নৌকার মধ্যেই মদ্যপানের ব্যবস্থাও হয়ে যাচ্ছে ত্রাণ এজেন্টদের মাধ্যমে। বিকেলের মধ্যেই বিলি হওয়া ত্রাণ বিক্রি করা হচ্ছে গদখালি বা লাগোয়া এলাকায়। বাইরে থেকে খালি হাতে গিয়েও প্যাকেট করা ত্রাণ কিনে বলি করতে পারবেন যে কোনও ব্যক্তি।

আরও পড়ুন- পাক মোকাবিলায় তালিবানদের সঙ্গে হাত মেলাচ্ছে মোদী সরকার

বিষয়টি নজরে আসতেই সক্রিয় হয়েছে প্রশাসন। গদাখালিতে যে ত্রাণ শিবির করা হয়েছে সেটি গোসাবা থানার অধীনে পরে। স্থানীয় বিডিও সৌরভ মিত্র বলেন, “এই প্রতিকূল পরিস্থিতিতে এই মানুষগুলির পাশে দাঁড়ানোর নামে যারা এখানে অসভ্যতা করতে আসছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনে প্রশাসন কড়া ব্যবস্থা নেবে।” সেই সঙ্গে ত্রাণ দিতে আগ্রহী মানুষদের প্রতি তাঁর বার্তা, “অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ান। প্রশাসন সহযোগিতা করবে।”

- Advertisement -

সপ্তাহের সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ

কলকাতা থেকে দফতর সরাচ্ছে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা, আশঙ্কায় বহু কর্মী

খাস খবর ডেস্ক: কেন্দ্রের অধীনে থাকা রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার সদর দফতর কলকাতা থেকে সরিয়ে ফেলা হতে পারে অন্য রাজ্যে। যার জেরে কর্মহীন হয়ে পড়তে পারেন...

বাস তো নয় যেন হাতি পুষছি, সরকারি সাহায্যের দাবি স্কুল বাস মালিকদের

রায়গঞ্জ: প্রায় দেড় বছর ধরে বন্ধ রয়েছে স্কুল৷ তখন থেকেই গ্যারেজ বন্দী স্কুল বাসগুলিও৷ দীর্ঘদিন ধরে অচল অবস্থায় পড়ে থেকে নষ্ট হয়ে গিয়েছে বাসের...

স্বাস্থ্য দফতরে ১০০ শতাংশ অবাঙালি নিয়োগ, ক্ষুব্ধ বাংলাপক্ষ

সৌমেন শীল, কলকাতা: বাংলা নিজের মেয়েকেই চাই। এই স্লোগান দিয়ে একুশের বিধানসভা নির্বাচনে লড়াই করে বিপুল সাফল্য পেয়েছে তৃণমূল। তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় আসার একমাসের...

মুকুলের বিরুদ্ধে ওঠা সম্মানহানিকর অভিযোগের সামনে দাঁড়িয়েও শুভ্রাংশু নীরব কেন, উঠছে প্রশ্ন

কলকাতা: যা রটে তার কিছু তো বটে৷ বহুল ব্যবহারে জীর্ণ এই প্রবাদটাই ফের সামনে উঠে আসছে মুকুল রায়ের তথ্য পাচারের প্রসঙ্গে পুত্র শুভ্রাংশুর নীরবতাকে...

খবর এই মুহূর্তে

হ্যাপি ফাদার্স ডে…

পূর্বাশা দাস: প্রত্যেকটা সন্তানের জীবনে যেমন তার মায়ের গুরুত্ব থাকে তেমনই গুরুত্ব থাকে বাবারও। মা যেমন পরম মমতায় আগলে রাখেন সন্তানদের, বাবা তেমন এই...

বহুতলের কার্নিশে বেড়়াল, হুলুস্থুলু কাণ্ড নিউটাউনে

কলকাতা: দুদিকে সুউচ্চ বহুতল৷ তার মাঝখানে পাইপ লাইন৷ সেই পাইপ লাইন সংলগ্ন কার্নিশে বসে একটি পূর্ণ বয়স্ক বেড়াল। আরও পড়ুন: জ্ঞানেশ্বরী কাণ্ড: ক্ষতিপূরণের লোভে জীবিত মানুষের...

জীবনের ট্র্যাকে হেরে গেলেন ‘ফ্লাইং শিখ’: এক নজরে এই কিংবদন্তির নানান কীর্তি

খাস খবর ডেস্ক: গত বছর করোনা আবহ শুরু হওয়া থেকে একাধিক ক্রীড়াবিদকে হারিয়েছি আমরা। এই বছরও কমছে না সেই মৃত্যু মিছিল। শুক্রবার রাতে প্রয়াত...

জ্ঞানেশ্বরী কাণ্ড: ক্ষতিপূরণের লোভে জীবিত মানুষের মৃত সাজার অভিনয়

কলকাতা: অবশেষে জ্ঞানেশ্বরী কাণ্ডের ১১ বছর পর জানা গেল ‘মৃত’ অমৃতাভ চৌধুরী বহাল তবিয়তেই বেঁচে রয়েছেন৷ ইতিমধ্যে তাঁর ‘মৃত্যু’র ক্ষতিপূরণ বাবদ রেলের তরফে পরিবারকে...