পরিকল্পিত নাকি পথদুর্ঘটনা, শুভেন্দুর কনভয় দুর্ঘটনায় প্রকাশ্যে এল নয়া তথ্য

0
326

কাঁথি : ৪৮ ঘন্টার মধ্যেই রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর কনভয় দুর্ঘটনার নয়া তথ্য সামনে এল। দুর্ঘটনার পরে পলাতক লরি চালক ও লরিটিকে নন্দকুমার থেকে আটক করে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মারিশদা থানার পুলিশ। পরিকল্পিত নাকি নিছকই পথ দুর্ঘটনা! এই তথ্যের উদঘাটন করতেই তদন্ত শুরু করে পুলিশ। এবার লরি চালকের স্বীকারোক্তিতে নয়া তথ্য সামনে এল জেলা পুলিশের।

শুভেন্দু অধিকারীর বিধানসভা কেন্দ্র পূর্ব মেদিনীপুরের বাসিন্দা পালিয়ে যাওয়া লরির মালিক। মালিকের নাম পরমেশ্বর প্রধান। মারিশদা থানার পুলিশের হাতে আটক লরির চালক বীরভূম জেলার বাসিন্দা শেখ সোলেমান বলেন, তাঁর লরিটি পেট্রোল পাম্প সংলগ্ন রাস্তার পাশে দাঁড়িয়েছিল। তখনই একটি স্করপিও এসে লরির সামনে ধাক্কা দেয়। এই ঘটনার পরে পাশে থাকা পেট্রোল পাম্পে তেল নেন তিনি। লরি চালক আরও দাবি করেন,  এই দুর্ঘটনার পরে ওই স্করপিও থেকে তাঁর কোনও দোষ নেই বলে তাঁকে চলে যেতে বলা হয়।  তাই লরির চালক সেখান থেকে চলে যান। এরপর সেই ঘটনার কথা মালিককে জানান ওই চালক। জানা যাচ্ছে, কোনও পরিকল্পনা নয় নিছকই পথ দুর্ঘটনা, এখনও পুলিশের তদন্তে এই তথ্যই উঠে এসেছে।

রবিবার সকালে আবারও মারিশদা থানায় এসে হাজির হয় ফরেনসিক দল ও মোটর ভেহিক্যাল আধিকারিকরা। তাঁরা বাস ও লরিটিকে খতিয়ে দেখেন। পাশাপাশি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন তাঁরা। দুর্ঘটনার কবলে পড়া বাস ও লরিটি পরীক্ষা করে দেখেন আধিকারিকরা। এখনও থানাতে আটক রয়েছে শুভেন্দু অধিকারীর নিরাপত্তারক্ষীদের কনভয়, যাএীবাহী বাস ও লরিটি।

কাঁথি মহকুমা পুলিশ আধিকারিক সোমনাথ সাহা বলেন , ‘ফরেনসিক দল ও মোটর ভেহিক্যাল আধিকারিকরা এসে পরিদর্শন করেন। এরপরে তারা রিপোর্ট দেবেন। এখনও পর্যন্ত পথ দুর্ঘটনায় কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি’। তিনি আরও বলেন ‘সিআরপিএফ-এর বিরুদ্ধে বাসের চালককে মারধরের অভিযোগ দায়ের হয়েছে। পুরো ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তদন্তের কারণে সিআরপিএফদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে’।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার রথের দিন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তমলুকে অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন। সেই সমইয়েই দুর্ঘটনার কবলে পড়ে তাঁর কনভয়। এদিন দিঘা নন্দকুমার ১১৬ বি জাতীয় সড়কের মারিশদা দুরমুঠ পাম্পের কাছে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে তাঁর কনভয়। এরপর খবর ছড়িয়ে পড়তেই ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।