ডাইনি সন্দেহে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে খুন করল প্রতিবেশীরা

0
30

বংশীহারি: বিজ্ঞান এগোচ্ছে। দূর হচ্ছে অনেক অজানা, অদেখার অন্ধকার। কিন্তু এক শ্রেণির মানুষের মন থেকে কুসংস্কারের অন্ধকার যে আজও পুরোপুরি সরেনি তার প্রমাণ মিলল আরও একবার। ডাইনি সন্দেহে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে খুন করলেন প্রতিবেশীরা । ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুরের বংশীহারিতে।

আরও পড়ুনঃ ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার নাম করে নাবালিকাকে ধর্ষণ, গ্রেফতার যুবক

মৃতের পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, এক প্রতিবেশী বেশ কয়েকদিন ধরেই অসুস্থ। তাঁর শারীরিক অবস্থা খারাপ দেখে বছর ৪৮-এর লক্ষ্মীরাম বলেছিলেন, ‘সে আর বেশিদিন বাঁচবে না’। আর এই কথা বলার অপরাধেই প্রাণ হারাতে হল গৌরীপুর গ্রামের লক্ষ্মীরাম হেমব্রমকে। প্রথমে পিটিয়ে ও পরে কুড়ুল দিয়ে কুপিয়ে খুন করে কয়েকজন প্রতিবেশী।

আরও পড়ুনঃ ব্যারাকপুরের বিরিয়ানির দোকানে গুলিকাণ্ডে গ্রেফতার মণীশ শুক্লা খুনের ধৃত

জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে লক্ষ্মীরাম নেশা করে বাড়ি ফেরেন। খানিক পরেই চিৎকার-চেঁচামেচি করতে শুরু করেন। তাঁর ঠিক পাশের বাড়িতেই দীর্ঘ কয়েকমাস যাবৎ এক ব্যক্তি অসুস্থ অবস্থায় আছেন। তাঁর উদ্দেশ্যে লক্ষ্মীরাম বলেন, ‘রোগী আর বাঁচবে না’ ৷ এরপরই এদিন সকালে এলাকার কয়েকজন যুবক লক্ষ্মীরামের উপর চড়াও হয় ৷ কুড়ুল দিয়ে কুপিয়ে তাঁকে মেরে ফেলা হয়। অন্যদিকে, গ্রামের শিক্ষিতরা বলছেন, এই ঘটনার পেছনে রয়েছে ডাইন প্রথার কুসংস্কার ৷ ইতিমধ্যে ঘটনার তদন্তে নেমে দুজনকে গ্রেফতার করেছে বংশীহারি থানার পুলিশ ।