শিবভক্তদের সেবায় সংখ্যালঘু মুসলিমরা

0
29

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাঁকুড়া : কিছুদিন আগেই নুপুর শর্মা বিতর্কে উত্তাল ছিল সারা রাজ্য তথা দেশ। সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার খবরে ছেয়ে গিয়েছিল সংবাদমাধ্যম। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ভুলতে বসেছিল দেশ। এরকম পরিস্থিতির পরেই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য এক নজির গড়ল বাঁকুড়া। শিবভক্তদের আপ্যায়নের দায়িত্ব নিলেন সংখ্যালঘু মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ।

শুশুনিয়ার পাহাড়ি ঝর্না থেকে পায়ে হেঁটে জল নিয়ে আসছেন শিবভক্তরা। আর সেই শিবভক্তদেরই আপ্যায়নের দায়িত্ব নিলেন সংখ্যালঘু মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ। রবিবার বিকেলে এমন ছবিই ধরা পড়ল বাঁকুড়া শহরের মাচানতলা স্টেট ব্যাঙ্কের সামনে।

- Advertisement -

শ্রাবণ মাসের তৃতীয় সোমবার নিজেদের এলাকার মন্দিরে শিবের মাথায় জল ঢালতে যাচ্ছেন ভক্তরা। শুশুনিয়ার পাহাড়ি ঝর্না থেকে জল নিয়ে পায়ে হেঁটে রওনা দিয়েছেন অনেকেই। দীর্ঘ পথ হাঁটতে গিয়ে পরিশ্রান্ত তাঁরা। তাঁদের পাশেই দাঁড়ালেন শহরের সংখ্যালঘু মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ। পায়ে ব্যথানাশক স্প্রে করার পাশাপাশি বিশ্রামের ব্যবস্থা ও জলখাবারের ব্যবস্থা করেন তাঁরাই। এমনকি ভ্রাতৃত্বের বন্ধন হিসেবে রাখি পরানোর ব্যবস্থাও করেন তাঁরা।

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির নজির গড়ল এই ঘটনা। জাত-ধর্ম নির্বিশেষে মানুষই তো মানুষের পাশে থাকে। কে হিন্দু! কে মুসলিম! তার চেয়েও বড়, কে কতটা মানবিক! এই প্রশ্নের উত্তর দিতে গেলে এই ঘটনার উল্লেখ অবশ্যই করতে হয়।