মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার কড়া হাতে ক্রিমিনাল দমন করে, দাবি ফিরহাদের

0
12

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলকাতা: রাজ্য শুট আউটের ঘটনা নিয়ে এবার মুখ খুললেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম৷ দিলীপ ঘোষের বক্তব্যের বিরোধিতা করে তিনি বলেন, ‘‘এনকাউন্টারের ঘটনা নিয়ে তিনি যা বলেছেন তা তাঁর চটকদারি কথাবার্তার অংশ। তাঁর জেনে রাখা উচিত এরাজ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার কড়া হাতে ক্রিমিনাল দমন করে।’’

তিনি আরও বলেন, ‘‘ক্রিমিনাল থাকলে শুট আউটের ঘটনা ঘটে। এরাজ্যে ক্রিমিনালের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হয়৷ বাংলায় আইন শৃঙ্খলার পরিস্থিতি অন্যান্য রাজ্যের থেকে অনেক ভালো। এরাজ্যে কাউকে এনকাউন্টারে মরতে হয় না। খড়গপুর ও দত্তপুকুরের শুট আউট হয়েছে মানে এটা নয় যে এই ধরণের ঘটনা শুধু এই রাজ্যেই ঘটে৷ দেশের আর কোথাও ঘটছে না এটা কিন্তু নয়৷ খোঁজ নিয়ে দেখলে দেখা যাবে এই ধরণের ঘটনা অন্যান্য রাজ্যে প্রায়ই ঘটছে৷ কিন্তু বাংলায় এই সব ঘটনায় জড়িত দুষ্কৃতীরা কখন রেহাই পাবে না৷ তাদের বিচার হবেই৷ শাস্তি তারা পাবেই৷’’

- Advertisement -

হরিদেবপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় কলকাতা পুরসভার ডিজি লাইটের বিরুদ্ধে যথেষ্ট ক্ষুব্ধ ফিরহাদ হাকিম। এই বিষয়ে তিনি হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘‘শিশুটির মৃত্যুর পেছনে গাফিলতি কার তা দ্রুত বের করতে হবে৷ কোনো রকম বাহানা যেন না শুনি৷’’ ইতিমধ্যেই ওই দুর্ঘটনার পিছনে আসল কারণ খতিয়ে দেখার কাজ চলছে। আগামী তিন দিনের মধ্যে ঘটনাটি খতিয়ে দেখার কাজ শেষ করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

তিন দিনের মধ্যে রিপোর্ট না পেলে নিজে এই ঘটনার কারণ খুঁজতে রাস্তায় নামবেন বলে জানিয়েছেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম। শুভেন্দু অধিকারী প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘শুভেন্দু বেশি দিন হয়নি বিজেপিতে গিয়েছে৷ তাই পাল্টি খেয়ে বেশি করে নিজেকে জাহির করার চেষ্টা করছেন। অথচ শীর্ষ নেতা তথা দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এ রাজ্যে এসে বলে গিয়েছেন এভাবে কোনো সরকারকে অনৈতিকভাবে ফেলা যায় না।’’