হাতে হাত মিলিয়ে দুর্গা পুজোর প্রস্তুতি নেন হিন্দু-মুসলমান

0
35
durga puja

মালদহ: সব থেকে বড় দুর্গা (durga puja)। উচ্চতা প্রায় ৬০ ফিট। শুধু মালদহে নয় দাবি করা হচ্ছে চলতি বছরে পশ্চিমবঙ্গে সব থেকে বড় দুর্গা প্রতিমা এটি ।

বাংলা-বিহার সীমান্তবর্তী এলাকা পিপলা। সেখানেই এবার দেখা যাবে ৬০ ফুটের দুর্গা। পিপলা রামকৃষ্ণ ফ্যান ক্লাবের পুজোয় দেখা যাবে এই প্রতিমাটি।। এই মুহূর্তে তুমুল ব্যস্ততা ক্লাবের শিল্পী এবং উদ্যোক্তাদের মধ্যে।  চলছে শেষ মুহূর্তের চূড়ান্ত প্রস্তুতি। ৬০ ফিট উঁচু দুর্গা প্রতিমা এমন ভাবে তৈরি করা হচ্ছে যাতে ঝড়, জল বৃষ্টিতে কোন সমস্যা না হয়। প্রতিমা তৈরির দায়িত্ব যৌথভাবে সামলাচ্ছেন মালদহ এবং কৃষ্ণনগরের শিল্পীরা। তবে শুধুমাত্র প্রতিমা নয় প্যান্ডেল এবং আলোকসজ্জাতেও থাকছে চমক। উদ্যোক্তাদের আশা এবার রেকর্ড সংখ্যক ভিড় হবে তাঁদের পুজো মণ্ডপে। সেই ভিড় সামলাতে সব রকম ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে ক্লাবের পক্ষ থেকে।

- Advertisement -

দুর্গা পুজোতে (durga puja) সম্প্রীতির এক অনন্য নজির তৈরি করছে পিপলা রামকৃষ্ণ ফ্যান ক্লাব। প্রত্যেকবারের মত এইবারও  হিন্দু-মুসলিম সকলে মিলেই এই পুজোর আয়োজন করছে। পুজোর সম্পাদক এলাকার বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ বুলবুল খান এবং প্রধান পৃষ্ঠপোষক জম্মু রহমান। পুজোর বাজেট প্রায় ১৫ লক্ষ টাকা। গত দুই বছর ইচ্ছে থাকলেও করোনা আবহে তেমন ভাবে আয়োজন করা হয়ে ওঠেনি। এই পুজোকে কেন্দ্র করে সমগ্র হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকা জুড়েই মানুষের মধ্যে তৈরি হয়েছে চরম উন্মাদনা। শিল্পী তন্ময় দাস বলেন, ‘’আমি এবং কৃষ্ণনগরের একজন শিল্পী মিলে এই প্রতিমা তৈরির দায়িত্বে আছি। আশা করছি মানুষের মধ্যে সারা ফেলবে। এতবড় প্রতিমা আমরা আগে কখনো গড়িনি। ‘’ রামকৃষ্ণ ফ্যান ক্লাবের সম্পাদক বুলবুল খান জানান, ‘’বাজেট দশ লক্ষ টাকারও বেশি। বাজেট যেটাই থাকুক সেটা কোন সমস্যা না। আমরা সেরা পুজোটা করতে চাই। হিন্দু-মুসলিম সকলে মিলে এখানে আনন্দ করি।‘’