ময়নাগুড়ি ধর্ষণকাণ্ডে চাঞ্চল্যকর মোড়, রিপোর্ট তলব কলকাতা হাইকোর্টের

0
30
ssc

ময়নাগুড়ি: ময়নাগুড়ি ধর্ষণকাণ্ডে চাঞ্চল্যকর মোড়। এই মামলায় প্রথমে সিবিআই তদন্তের দাবি করেছিলেন নির্যাতিতার বাবা। কিন্তু, তারপরেই সুর বদল করে তিনি রাজ্য পুলিশেই আস্থা রাখেন। এবার, ময়নাগুড়ি ধর্ষণে রিপোর্ট তলব করল কলকাতা হাইকোর্ট। তদন্তের নজরদারি করবেন জলপাইগুড়ির ডিআইজি। ২০ মের মধ্যে আদালতে রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পরবর্তী শুনানির দিন ২০ জুন।

আরও পড়ুনঃ অনলাইনে পরীক্ষা, ঘুরিয়ে টুকলি করার দাবি নয় কি, উঠছে প্রশ্ন

মঙ্গলবার আদালতে বিজেপি মহিলা সেলের পক্ষে আইনজীবী সুস্মিতা সাহা দত্ত অভিযোগ জানান, নির্যাতিতার বাবাকে টিপ ছাপ দিতে বাধ্য করা হয়েছে। তাই তিনি না বুঝেই বলেছেন, সিবিআই তদন্ত চান না। এদিন আইনজীবী সুস্মিতা সাহা দত্ত আদালতে বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে বিচার করার আবেদন করেন। অবিলম্বে তদন্তকারী অফিসারকে পরিবর্তন করা প্রয়োজন বলেো তিনি দাবি করেন। পাশাপাশি, তিনি এই মামলার তদন্ত সিবিআইকে দেওয়ার আবেদন করেন।

আরও পড়ুনঃ রেলপথ না কি আস্ত নদী বোঝা দায়, প্রবল বর্ষণে বিপর্যস্ত অসম

অন্যদিকে, অ্যাডভোকেট জেনারেল সৌমেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় বলেন, তদন্ত সঠিক পথে এগোচ্ছে। আবেদনকারী কখনই তদন্তকে প্রভাবিত করতে পারেন না। আদালত চাইলে, জোর করে টিপ ছাপ হয়েছে এই বিষয়টি যেকোনও উচ্চপদস্থ অধিকারীকে দিয়ে তদন্ত হতে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, ২৮ ফেব্রুয়ারি জলপাইগুড়ি জেলার ময়নাগুড়ি এলাকায় এক নাবালিকাকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ ওঠে স্থানীয় এক যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনায়, যুবকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন নাবালিকার পরিবার।এরপর থেকেই পলাতক অভিযুক্ত। অভিযুক্ত নাবালিকাকে অভিযোগ তুলে নেওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকে। অভিযোগ না তুললে খুনের হুমকি দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ। সেই মানসিক চাপ সহ্য করতে না পেরে নাবালিকা গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। ১২ দিনের লড়াইয়ের পর উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর।