নতুন বছরের শুরুতে DA মামলার শুনানি, আপাতত অন্তর্বতী জামিন ধৃতদের

0
19
DA BAIL

কলকাতাঃ DA মামলায় ধৃতদের জামিন মঞ্জুর। অন্তর্বতী জামিন মঞ্জুর করল আদালত। পরবর্তী শুনানি আগামী বছরের জানুয়ারি মাসের ১১ তারিখ।

আরও পড়ুন : বাবুলের কাজে বিরক্ত মমতা, বিধানসভা অধিবেশনের পরেই জল্পনা তুঙ্গে

- Advertisement -

বকেয়া মহার্ঘ ভাতা (DA)-র দাবিতে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের বিক্ষোভে গতকাল অর্থাৎ বুধবার উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ধর্মতলা চত্বর। পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি হয় আন্দোলনকারীদের। অভিযোগ ঘুষি মেরে কিছু আন্দোলনকারীর মুখ ফাটিয়ে দেয় পুলিশ। আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে পাল্টা মারধরের অভিযোগ আনে পুলিশও। পুলিশের কাজে বাধা, পুলিশকর্মীদের মারধর করা হয়েছে এই অভিযোগের ভিত্তিতে ভারতীয় দণ্ডবিধির 147, 148, 149, 332, 353, 506, 509 সহ একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করা হয় । আন্দোলনকারীদের মধ্যে ৪৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধৃতদের মধ্যে ১১ জন মহিলা বলে জানা গেছে। অভিযুক্তদের আজ ব্যাঙ্কশাল কোর্টে তোলা হয়। এই ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন :রাতের অন্ধকারে বাড়ি বাড়ি গিয়ে হুমকি, অভিযোগ কবির ভিটে-মাটি দখল করতে তৎপর প্রতিবেশী

টানাহ্যাচড়া, রক্ত, ধস্তাধস্তি। বুধবার আন্দোলনের সম্মুখ সমরে ছিলেন রাজ্যের সরকারি চাকুরীজীবীরা। এদিন মহার্ঘ ভাতা (DA)-র দাবিতে আবারও উত্তাল হয়ে ওঠে ধর্মতলা চত্বর। কেন্দ্রের সমান বকেয়া মহার্ঘ ভাতা কবে পাওয়া যাবে? এই দাবিতেই বুধবার বিধানসভা অভিযানে নামে রাজ্য সরকারের বেতনভুক এবং পেনশনভুক্ত কর্মচারীদের ৩০টি সংগঠন। বিক্ষোভকারীরা জমায়েত করে আকাশবানী ভবন থেকে বিধানসভার দিকে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। পথে দফায় দফায় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। আন্দোলনকারীদের আটকাতে তৎপর হয় পুলিশ। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন উচ্চপদস্থ পুলিশ আধিকারিকরাও। তবে বিপুল সংখ্যক বিক্ষোভকারীদের সামলাতে হিমসিম খেতে হয় পুলিশবাহিনীকে।

বুধবারের এই ঘটনায় মন্তব্য করেন স্বয়ং কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। একটি মামলার শুনানি চলাকালীন তিনি বলেন, ‘ডিএ (DA) আন্দোলনে গতকাল হাইকোর্টের কয়েকজন কর্মী গ্রেফতার’ এটা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা।