একই এলাকায় বার বার ডাকাতি, অবশেষে ডাকাত ধরতে সমর্থ পুলিশ

0
23
howrah

হাওড়া : বারেবারে একই থানা এলাকা থেকে ঘটে চলছিল দুঃসাহসিক ডাকাতির (dacoity) ঘটনা। অবশেষে ডাকাত ধরতে সমর্থ হল পুলিশ। তদন্তে হাওড়ার জগৎবল্লভপুর থানার পুলিশ।

অবশেষে ডাকাত ধরতে সমর্থ হল পুলিশ। বেশ কয়েকদিন ধরে বার বার একই থানা এলাকায় ঘটছিল দুঃসাহসিক ডাকাতির ঘটনা। তদন্ত শুরু করে হাওড়ার জগৎবল্লভপুর থানার পুলিশ। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে এই গ্যাংয়ের তিন দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করা হয়। উদ্ধার হয় বেশ কয়েক লক্ষ টাকার চুরি যাওয়া গয়না সহ বেশ কিছু নগদ টাকাও।

- Advertisement -

সম্প্রতি কয়েকদিন আগে ডানকুনিতে এক ডাকাতির (dacoity) ঘটনার কিনারা করে পুলিশ। প্রকাশ্য দিবালোকে দোকানের মধ্যে ঢুকে চুরি করেছিল দুষ্কৃতীরা! তাও আবার আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে! মাত্র কয়েকদিন আগে এই ধরনের ভয়াবহ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছিল ডানকুনির (Dankuni) একটি সোনার দোকানে (Jewellery Shop)। দোকান থেকে সোনার গয়য়া হাতিয়ে পালিয়ে গিয়েছিল তারা। তবে শেষরক্ষা হয়নি। ডাকাত দলের চার সদস্যকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার ঠিক কয়েকদিন পর ওই দলের আরও দু’জনকে গ্রেফতার করে তদন্তকারীরা। এদিকে তদন্তের মাধ্যমে প্রতিদিনই নতুন তথ্য উঠে আসছে বলে জানা গিয়েছে। বাড়ি ভাড়া নিয়ে ঠান্ডা মাথায় পরিকল্পনা, ব্লু প্রিন্ট তৈরি করেই ডানকুনির সোনার দোকানে ডাকাতি। তদন্তে পুলিশ জানতে পারে, ডাকাতির পর মোবাইল ফোন ব্যবহার করত না দুষ্কৃতীরা। এমনকী, রাজ্য থেকে পালিয়ে যাওয়ার জন্য তারা বেছে নিয়েছিল বাস। ব্যক্তিগতভাবে কোনও গাড়িও ভাড়া করেনি তারা। এই ডাকাতির সঙ্গে বিহারের একটি গ্যাং জড়িত ছিল বলে জানতে পারে পুলিশ। আর তাদের কৌশল জানার পরই বাকি দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে চন্দননগরের গোয়েন্দরা। প্রায় ২৫ কেজি সোনায় গয়না উদ্ধার করা হয়েছে। ওডিশা তেলঙ্গানা সীমান্ত থেকে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ।