পাশে প্রেমিক, পার্কে চিপস খেতে খেতে পরীক্ষা চলছে উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে

0
39

শিলিগড়ি : পরীক্ষা অনলাইন না অফলাইন এই বিতর্ক নিয়ে একদিকে তোলপাড় রাজ্য। অন্যদিকে, পুরনো সেই পাঠশালাকে স্মরণ করিয়ে দিল শিলিগুড়ির এই পরীক্ষা নেওয়ার কৌশল। কোনও চার দেওয়াল নয়, স্কুলের ক্লাসরুম বা হল্রুম নয়। বরং স্বয়ং প্রকৃতিই হবে পরীক্ষার পরিদর্শক। এমনই চিত্র ফুটিয়ে তুলল উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থীরা।

গতকালই পরীক্ষা দেওয়ার এই ধরণ এখন লোকমুখে প্রচারিত বিষয় হয়ে গিয়েছে। পার্কে বসে রয়েছে পরিক্ষার্থী। সেখানেই মনোযোগ দিয়ে লিখে চলেছে প্রশ্নের উত্তর। পাশেই আবার বসে রয়েছে মা, বাবা এবং প্রেমিক। নিজের মনের মতো করে প্রশ্নের উত্তর লিখছে পরিক্ষার্থী। শিলিগুড়িতে এইভাবেই পরীক্ষা সম্পন্ন হল মাঠে ও পার্কে। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি সেমিস্টারের পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে এইভাবেই।

- Advertisement -

এমন পরীক্ষার ধরণ দেখে আগে কখনোই কেউ দেখেনি। আগামীদিনেও দেখবে কিনা সন্দেহ। মাঠে বসে পরীক্ষা দিচ্ছে ছাত্রছাত্রীরা। পাশে রয়েছে পকোড়া এবং চিপস। ক্যাফের মালিওক বলছেন, ‘পরীক্ষা চলছে বেশি কথা বলবেন না’। অন্যদিকে ছাত্রের মা নিজেই ছেলের উত্তরপত্র ধরে বসে রয়েছেন। বলছেন, ‘ছেলে হাতে লিখতে পারে না তাই লিখে দিচ্ছি’। এইভাবে পরীক্ষা দিয়ে পাশ করে ঠিক ভবিষ্যৎ কিরকম হবে তা নিয়ে ছাত্রছাত্রী বা শিক্ষক শিক্ষিকারা কেউই সংবাদমাধ্যমের কাছে মুখ খুললেন না।

একদিকে চলছে ভোজন, পাশে বসে প্রেমিক আর ছাত্রী পরীক্ষা দিচ্ছে। সিনেমা নাকি পরীক্ষা তা বুঝতে পারছেন না কেউই। পড়াশোনার এই হাল দেখে টনক নড়ছে কিনা জানা নেই তবে এই বেহাল অবস্থা নিয়ে সমালোচনার ঝড় তুলেছে ওয়াকিবহাল মহল। শিলিগুড়ির মাঠে উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের এই পরীক্ষা নামক ম্যাটিনি শো আদতে ভবিষ্যতের কি অবস্থা করছে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে বারবার। শিক্ষক শিক্ষিকারাই বা ছাত্রছাত্রীদের কিরকম ভবিষ্যৎ তৈরি করছেন তাও প্রশ্নের মুখে।