ধুনুচি নাচে মণ্ডপ মাতালেন মহিলারা

0
24
durga puja

গঙ্গাসাগর: আজ বিজয়া দশমী। দেবী দুর্গার (durga puja) বিদায় বেলায় ধুনুচি (dhunuchi) নাচে মণ্ডপ মাতালেন মহিলারা। পরস্পরের গালে লাগালেন সিঁদুর।

আরও পড়ুন : আজও বহাল ৫০০ বছরের পুরনো রীতি, আবেগ ও ভক্তিভরে বিদায় বড় দেবীকে

- Advertisement -

৫ দিন পুজো শেষে এবার বিদায়ের পালা। মণ্ডপে মণ্ডপে চলছে তারই তোড়জোড়। শ্রীধাম গঙ্গাসাগর (gangasagar) সর্বজনীন দূর্গা উৎসব পুজো (durga puja) কমিটির পুজো চলতি বছরে ৪৫ তম বছরে পদার্পণ করল। আজ দশমীর (dashami) পুজো শেষে সিঁদুর খেলা ও ধুনুচি নাচে (dhunuchi dance) মেতে উঠলেন মহিলারা। ঢাকের বাদ্যির তালে তালে ধুনুচি হাতে কোমর দুলিয়ে মহিলারাই মাতিয়ে রাখলেন মঞ্চ।

আরও পড়ুন : এলপিজি সিলিন্ডার বিস্ফোরণে বাড়িতে ধস, মৃত ১ শিশু ও ২ মহিলা, দুর্ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী

চলতি বছরের পুজোয় ষষ্ঠী থেকে শুরু হয়েছিল বৃষ্টি(rain)। একনাগারে না চললেও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি (rain) ভয় ধরিয়ে ছিল দর্শকদের মনে। ‘অসুর’ রূপি বৃষ্টি হার মানাতে পারিনি মণ্ডপমুখী দর্শকদের। সপ্তমীর সকালে দক্ষিণ কলকাতার মণ্ডপে মণ্ডপে ভিড় (crowd) চমকে দিয়েছিল অনেককে। সময় যত গড়িয়েছে জন সমুদ্রের আকার নিয়েছে মহানগরীর রাস্তা। ২ বছর লকডাউনে (lockdown) নানা বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছিল। তাই চলতি বছরে শহর থেকে মহানগর, গ্রাম থেকে মফস্বলে মণ্ডপে মণ্ডপে ভিড় (crowd) ছিল চোখে পড়ার মত।   ্পরসঙ্গত এদিন কোচবিহারের দেবী দুর্গার বিদায় বেলায় বড় দেবীর মন্দিরে উপচে পড়ে ভিড়। দশমী পুজোর পর খুলে দেওয়া হয়েছে বড় দেবীর মন্দির। বড় দেবীকে সিঁদুর পরিয়ে সিঁদুর খেলায় মেতে উঠেন মহিলারা। এরপর প্রতিমাকে ট্রলিতে করে নিয়ে যাওয়া হয় কোচবিহারের লম্বা দেখি নিরঞ্জন ঘাটে। সেখানে বড় দেবীকে বিসর্জন দেওয়া হয়। এখন বলি নিষিদ্ধ। তবে প্রাচীন প্রথা মেনে আজও এখানে হয় শূকর বলি।  প্রসঙ্গত আজ দশমী। ৫ দিন পুজো শেষে আজ দেবী দুর্গার বিদায় বেলা। বিদায় লগ্নে আপামর বাঙালির মন ভারাক্রান্ত। মণ্ডপে মণ্ডপে চলছে দশমী পুজো। পুজো শেষে সিঁদুর খেলার পালা। বিষাদের মাঝে ঢাকের বাদ্যির তালে মন বলে উঠছে আসছে বছর আবার হবে।

download : https://play.google.com/store/apps/details?id=app.aartsspl.khaskhobor