ক্লাব দখলের লড়াইতে উত্তপ্ত জগদ্দল, বোমাবাজি দুষ্কৃতীদের

0
825

জগদ্দল : প্রায় ৬০ বছরের পুরোনো একটি ক্লাব। একদা উত্তর ২৪ পরগনায় দাপিয়ে খেলত এই ক্লাবের ফুটবলাররা। বহু খেলোয়াড় আবার কলকাতা ময়দানেও এসে খেলে গিয়েছেন এই ক্লাব থেকে এসেই। সেই ঐতিহ্যশালী শ্রমিক কেন্দ্র কল্যাণ কেন্দ্র রিক্রিয়েশন ক্লাবেই এবার বোমাবাজির ঘটনা প্রকাশ্যে এল।

আরও পড়ুন, ‘তৃণমূল করত বলেই ছেলে খুন হয়েছে’, অভিযোগ বাবার

ক্লাবটির ৬০ বছরের গৌরবময় ইতিহাস থাকলেও বর্তমানে তা কার্যত অভিভাবকহীন৷ রাজ্যে পালাবদলের পর থেকেই এমন অবস্থায় পড়ে আছে ক্লাবটি। স্থানীয়দের অভিযোগ, দুষ্কৃতীরা এই ক্লাবের অধিকার পেতেই বোমাবাজি করেছে। শনিবার ভোর রাতে একের পর এক দু’টি বোমা মারে তারা। মাঠের পাশে বিনোদ প্রসাদ মাহাতো নামক একজনের বাড়ির দেওয়ালেও বোমাবাজি করে তারা৷

আরও পড়ুন, একবার চার্জ দিলেই ২৪০ কিলোমিটার দৌড়োবে এই স্কুটার

উল্লেখ্য, ভোট মিটে গিয়েছে প্রায় দু’মাসেরও বেশি সময় হতে চলল। কিন্তু তা সত্ত্বেও শান্ত হল না ভাটপাড়া-জগদ্দল। গোলাগুলি, বোমাবাজি যেন নিত্যদিনের বিষয় সেখানে। গতকালই ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিংয়ের বাড়ির পাশে ভাঙচুর চালিয়েছিল দুষ্কৃতিরা। অভিযোগ উঠেছিল শাসকদল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। এবার সেই ঘটনার চব্বিশ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই ফের উত্তপ্ত জগদ্দল।

স্থানীয় সূত্রে খবর, অভিভাবক হীন ক্লাবটির দখল পেতেই বোমাবাজি করেছে দুষ্কৃতীরা। ভোটের পর থেকেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে গোটা এলাকা। মাঝে পুলিশি তৎপরতায় হিংসার ঘটনা কম ঘটলেও ইদানীং তা আবার শুরু হয়েছে। দুষ্কৃতীদের এইরূপ কার্যকলাপে স্বাভাবিকভাবেই আতঙ্কিত গোটা এলাকা।