বসিরহাটে ধৃত তরুণীর জঙ্গি-যোগের মিলল প্রমাণ

0
151

বসিরহাট: লস্কর-ই-তইবার লিংকম্যান সন্দেহে বৃহস্পতিবার বসিরহাটের বাদুড়িয়া থেকে গ্রেফতার করা হয় তানিয়া পারভিনকে। কলকাতা পুলিশের টাস্ক ফোর্সের সদস্যরা এদিন সকালে বাদুড়িয়ায় তাঁর বাড়ি থেকে তাঁকে গ্রেফতার করে। তাঁর কাছ থেকে আটক করা হয় কিছু নথিপত্র এবং দুটি মোবাইল। এইসব নথি থেকে তাঁর সঙ্গে জঙ্গি সংগঠনের যোগের প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে বলেই জানা যাচ্ছে।

যুবতী বাংলা, ইংরাজি, হিন্দি ছাড়াও আরবি, উর্দু, কাশ্মীরী ভাষাতেও পটু। বাদুড়িয়ার মলয়পুরের বাসিন্দা তানিয়া সদ্য স্নাতক।এদিন ধৃত যুবতীকে বসিরহাট এসিজেএম আদালতে তোলা হয়। বিচারক তাকে ১৪ দিনের পুলিশই হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেয়।

- Advertisement -

দীর্ঘ জেরার পরে এই তরুণী তাঁর জঙ্গি যোগের কথা স্বীকার করেছেন বলেই জানা গিয়েছে। গোয়ান্দা সূত্রে জানা গিয়েছে লস্করের হয়ে এই রাজ্যে যুবকদের জঙ্গি কার্যকলাপের জন্য উৎসাহী করতেন তানিয়া। পাশাপাশি ফেসবুকের মাধ্যমে নিজের অন্য পরিচয় দিয়ে ভুয়ো প্রোফাইল খুলে দেশের সেনা এবং গোয়েন্দাদের প্রেমের সম্পর্কে এনে দেশের সুরক্ষিত এবং গোপনীয় তথ্য জানার চেষ্টা করতেন তিনি।

পাকিস্তান থেকে কাশ্মীর এবং সিরিয়ার জঙ্গিদের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ বর্তমান এই সমস্ত সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম ছাড়াও ইন্টারনেটের গোপন দুনিয়া অর্থাৎ ডীপ ওয়েবের মাধ্যমেও তিনি জঙ্গি সংযোগে থাকতেন। পুলিশি সূত্রে জানা গেছে তানিয়া স্বীকার করেন যে তাঁর ইচ্ছা চিল পাকিস্তান বা সিরিয়া গিয়ে জেহাদে যোগ দেওয়ার।

তানিয়া সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে বিভিন্ন মৌলবাদী ও জঙ্গি মনোভাবাপন্ন দলের সঙ্গে যুক্ত আছেন তাঁর মাধ্যমেই তিনি জঙ্গি কার্যকলাপের পরিচালনা করতেন। তদন্তকারীদের দীর্ঘ নজরদারির পর তাকে ধরা সম্ভব হয়েছে এবং তদন্তকারীরা জানিয়েছেন লস্করের জঙ্গি কার্যকলাপে রাজ্য কি অবস্থায় দাঁড়িয়ে তা জানার জন্য আরও জেরা করা হবে তানিয়া পারভিনকে।