খারাপ ভাষা প্রয়োগ করলে “মেরে হাত পা গুঁড়িয়ে দিন”, নিদান তৃণমূলের দাপুটে নেতা আরাবুল ইসলামের

0
29
arabul islam

খাসডেস্কঃ ভাঙড়ের কাশীপুরের গানেরআইট গ্রামে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় সুর চড়ালেন তৃণমূল নেতা আরাবুল ইসলাম। আইএসএফ (ISF) কর্মীদের গ্রেফতার করা না হলে থানা ঘেরাওয়ের হুঁশিয়ারি আরাবুলের (Arabul Islam)।

আরও পড়ুন :মুখে গামছা বেঁধে ফাঁকা বাড়িতে টেনে নিয়ে গিয়ে নাবালিকাকে গণধর্ষণ! অভিযুক্ত তৃণমূল নেতার ভাই

- Advertisement -

দলের বিরুদ্ধে কেউ খারাপ ভাষা প্রয়োগ করলে ‘মেরে হাত পা গুঁড়িয়ে দিন’। থানা ঘেরাওয়ের হুঁশিয়ারির পাশাপাশি  দলের বিরুদ্ধে কেউ খারাপ ভাষা প্রয়োগ করলে তার শাস্তি কী হতে পারে এককথায় বুঝিয়ে দিলেন আরাবুল। সভা থেকে আইএফএফ নেতাদের ‘ছাগল চোর, মুরগি চোর’ বলে বিদ্রুপ করেন তিনি। এদিন ঠিক কী বলেছিলেন আরাবুল? ‘‘দলীয় কর্মীদের বলছি, তৃণমূলের নামে যাঁরা খারাপ ভাষা ব্যবহার করবেন, তাঁদের গ্রামের ভিতর থেকে ধরে আনতে হবে। ধরে এনে বেঁধে হাত পা গুঁড়ো করে দিতে হবে।’’

আরও পড়ুন :যাত্রী নিয়ে বাড়ির মধ্যে ঢুকে পড়ল বাস, আগুন লেগে গেল সঙ্গে সঙ্গে

আরও পড়ুন :নদীতে স্নানে নেমে তলিয়ে মৃত্যু একই পরিবারের ৩ শিশুর, এলাকায় শোকের ছায়া

ভাঙড়ের কাশীপুরের গানেরআইট গ্রামে বিস্ফোরণে ঘটনার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার গানেরআইট এলাকায় ধিক্কার মিছিল এবং প্রতিবাদ সভার আয়োজন করেন আরাবুল (Arabul Islam)। প্রসঙ্গত, মঙ্গলবারের বিস্ফোরণের ঘটনায় ভেঙে পড়ে স্থানীয় তৃণমূল কর্মী শরিফুল মোল্লার বাড়ির একাংশ। সেই ঘটনায় জখম হন শরিফুলের স্ত্রী রোশনারা বিবি। ঘটনার ৪৮ ঘণ্টা কেটে গেলেও এখনও কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। পুলিশ ইতিমধ্যেই অপরিচিতদের বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রণোদিত মামলা রুজু করেছে। তবে রোশনারার দাবি, এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত আইএসএফ-ই। বিষয়টি নিয়ে কাশীপুর থানায় ১৩ জন আইএসএফ কর্মীর নামে লিখিত অভিযোগ হয়েছে। আইএসএফের বিরুদ্ধে একই সুরে অভিযোগ করছেন আরাবুল-সহ স্থানীয় তৃণমূল নেতারাও।