27 C
Kolkata
Thursday, June 17, 2021
Home জেলার খবর ১০ দিন ভেন্টিলেটরে থাকার পর সদ্যোজাত সন্তানকে কাছে পেলেন চিকিৎসক মা

১০ দিন ভেন্টিলেটরে থাকার পর সদ্যোজাত সন্তানকে কাছে পেলেন চিকিৎসক মা

হাওড়া: করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যমের হাত থেকে মানুষকে ফিরিয়ে নিয়ে আনার জন্য একদম সামনে থেকে লড়াই করছেন চিকিৎসক ও চিকিৎসার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা। মানুকে বাঁচালেও আক্রান্ত হচ্ছেন চিকিৎসকরা এমনকি প্রাণও দিচ্ছেন। এমনি বাংলার এক ২৫ বছরের চিকিৎসক ১০ দিন ভেন্টিলেটরে থাকার পর জয় করেছেন করোনাকে। সেই সঙ্গে প্রথমবার কাছে পেয়েছেন তাঁর নবজাতক শিশুকে।

- Advertisement -

ডাঃ আরফা সাজাদিন, যিনি ৩৭ সপ্তাহের গর্ভবতী অবস্থায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। সন্তান জন্ম দেওয়ার ঠিক তিনদিন পর অবস্থার অবনতি হওয়াতে হাওড়ার আইএলএস হাসপাতালে একটি ভেন্টিলেটরে রাখা হয়েছিল। হাওড়ার আইএলএস হাসপাতালের ক্রিটিকাল কেয়ার কনসালট্যান্ট ডাঃ কৌশিক নাহা বিশ্বাস বলেছেন, “২৫ বছর বয়সী ডাক্তার আরফা সাজাদিনকে ভেন্টিলেটারে স্থানান্তরিত করা হয়েছিল। ওই চিকিৎসক ৩৭ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন যখন তিনি সংক্রামিত ছিলেন এবং গ্লাইসেমিক নিয়ন্ত্রণ খুব কম ছিল। তাঁর অবস্থা দেখে তার উপরে সিজারিয়ান অপারেশন করতে হয়েছিল।”

ডাঃ কৌশিক নাহা বিশ্বাস আরও জানিয়েছেন যে, “প্রত্যেকেই আশা হারিয়ে ফেলেছিল। তিনি ১০ দিন ভেন্টিলেটরের যান্ত্রিক সহায়তায় থাকার পরে এবং বিভিন্ন জটিলতা ও ফুসফুসের সংক্রমণ সত্ত্বেও অবশেষে তিনি ভাইরাসকে পরাস্ত করেছেন।” মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে সন্তানের স্পর্শ অনুভব করেছেন মা। সেই ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন মা করোনায় আক্রান্ত হলেও বাচ্চাটির করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। ২৫ বছর বসয়ী এই তরুণী চিকিৎসক যখন আইসিইউতে ছিলেন তখন চিকিৎসকরা তাঁকে নানা ভাবে উৎসাহিত করেছে। ডাঃ বিশ্বাস বলেছেন, “আমরা তার সাথে কথা বলতাম এবং তাকে বলতাম যে, সে একজন যোদ্ধা এবং তাঁর হাল ছেড়ে দেওয়া উচিত নয়। সেই সঙ্গে এটাও বলা হত যে তাঁর সন্তান অপেক্ষা করছে এবং অবশেষে তিনি ভাইরাসকে পরাজিত করেছেন।”

- Advertisement -

মারণ ভাইরাসকে হারিয়ে এক মা কোলে পেয়েছে তাঁর সন্তানকে ও পৃথিবীর আলো দেখার পর এক শিশু ১০ দিন পর প্রথম তাঁর মায়ের স্পর্শ অনুভব করতে পেরেছে। করোনার সঙ্গে লড়াইয়ে যে ২৫ বছরের চিকিৎসক ডাঃ আরফা সাজাদিন জয়ী হয়েছেন তাতে খুশি তাঁর চিকিৎসাকারী চিকিৎসকরাও। ডাঃ আরফা সাজাদিনের সঙ্গে দায়িত্বে থাকা চিকিৎসকরাও সন্তানের কাছে মাকে ফিরিয়ে দেওয়ার লড়াইয়ে জয়লাভ করেছেন।

- Advertisement -

- Advertisement -

সপ্তাহের সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ

কলকাতা থেকে দফতর সরাচ্ছে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা, আশঙ্কায় বহু কর্মী

খাস খবর ডেস্ক: কেন্দ্রের অধীনে থাকা রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার সদর দফতর কলকাতা থেকে সরিয়ে ফেলা হতে পারে অন্য রাজ্যে। যার জেরে কর্মহীন হয়ে পড়তে পারেন...

লাইভে এসে ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করলেন অভিনেতা

অর্পিতা দাস: লাইভে এসে গাইলেন কবীর সুমনের 'হাল ছেড়ো না বন্ধু'। কিন্তু নিজে এই গান গাইলেও জীবনের প্রতি হাল ছেড়ে ১০টা ঘুমের ওষুধ খেয়ে...

শুভেন্দুর ‘কারসাজি’তে মাথা নোয়াতে বাধ্য হলেন মুকুল

সুমন বটব্যাল, কলকাতা: জল্পনা চলছিল বেশ কিছুদিন ধরেই৷ অবশেষে সেই জল্পনার অবসানও হতে চলেছে৷ সবকিছু ঠিক থাকলে জুম্মাবারের বিকেলে বিজেপি ছেড়ে পুরনো ঘরে ফিরতে...

বাস তো নয় যেন হাতি পুষছি, সরকারি সাহায্যের দাবি স্কুল বাস মালিকদের

রায়গঞ্জ: প্রায় দেড় বছর ধরে বন্ধ রয়েছে স্কুল৷ তখন থেকেই গ্যারেজ বন্দী স্কুল বাসগুলিও৷ দীর্ঘদিন ধরে অচল অবস্থায় পড়ে থেকে নষ্ট হয়ে গিয়েছে বাসের...

খবর এই মুহূর্তে

ভবিষ্যৎ ইনভেস্টরই ঠিক করবে, এফএসডিএল এর বৈঠকের পর বক্তব্য ইস্টবেঙ্গলের শীর্ষকর্তার

কলকাতা: ক্লাব ইনভেস্টর জটের মাঝে অন্ধকার ইস্টবেঙ্গলের ভবিষ্যৎ। ইনভেস্টর শ্রী সিমেন্টের সঙ্গে সম্পর্ক প্রায় শেষ হওয়ার পথে। এরই মধ্যে বুধবার ছিল এফএসডিএল এর বৈঠক।...

PFI ডেরা থেকে বিপুল বিস্ফোরক উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য

খাস খবর ডেস্ক: আগেই রেজিস্ট্রেশন বাতিল করেছিল আয়কর দফতর। এবার পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া বা পিএফআই(PFI) ডেরা থেকে উদ্ধার করা হল বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক।...

ভারতীয় কোস্টগার্ডকে রক্ষা করাতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ: ইন্সপেক্টর জেনারেল এমভি পাঠক

কলকাতা: সোমবার ১৪ জুন ইন্সপেক্টর জেনারেল এ কে হারবোলা টিএম (Inspector General AK Harbola TM) এর কাছ থেকে ইন্সপেক্টর জেনারেল এমভি পাঠক টিএম (MV...

মুকুলের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ কেন্দ্রের

খাস খবর ডেস্ক: ফুল বদল করতেই মুকুলের বিরুদ্ধে নিল পদ্ম শিবির। প্রায় চার বছর আগে তৃণমূলের সঙ্গে যাবতীয় সম্পর্ক ত্যাগ করেছিলেন মুকুল রায়। তার...