মাঝ সমুদ্রে ডুবু ডুবু তরী, ঢেউয়ে ভেসে দিঘায় পৌঁছালেন ছ’জন মৎস্যজীবী

0
22

দিঘা: তিরে এসে তরী ডোবা। বহুল ব্যবহারে জীর্ণ শব্দটি বিভিন্ন সময়ে আমি, আপনি ব্যবহার করে থাকি৷ কিন্তু সত্যিই যদি মাঝ সমুদ্রে তরীর ডুবু ডুবু হাল হয়, তাহলে মনের অবস্থা যে কি হয়, সেটা হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছেন দক্ষিণ ২৪ পরগণার নামখানার ছ’জন মৎস্যজীবী৷

আরও পড়ুনঃ কৌশিকী অমাবস্যার প্রভাব, প্রবল জলোচ্ছ্বাস সমুদ্র নগরীতে

পেশার তাগিদে গিয়েছিলেন মাঝ সমুদ্রে৷ আচমকায় বিকল যন্ত্রচালিত নৌকা৷ তারই জেরে রীতিমতো ঢেউয়ের সঙ্গে ভাসতে ভাসতে পথ ভুলে অবশেষে তরী এসে পৌঁছাল তিরে৷ দিঘায় এসে হাঁফ ছেড়ে বাঁচলেন তাঁরা৷ নামখানা থেকে ভাসতে ভাসতে সৈকত নগরী দিঘায় এসে পৌঁছান যন্ত্র চালিত বিকল ওই নৌকার ৬ মৎস্যজীবী এখন সুস্থ রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। যন্ত্রচালিত নৌকাটিও উদ্ধার করা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ গলা কেটে খুন মা ও ছেলেকে, মৃত্যুর কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা

সূত্রের খবর, দক্ষিন ২৪ পরগনার নামখানা এলাকায় একটি যন্ত্র চালিত নৌকা নিয়ে মৎস্য শিকারের জন্য বেরোন মৎস্যজীবীরা। মাঝ সমুদ্রে হঠাৎ বিকল হয়ে যায় ইঞ্জিন। সমস্যায় পড়েন মৎস্যজীবীরা। সমুদ্রের ঢেউয়ের তোড়ে ভাসতে ভাসতে দিঘার সমুদ্র সৈকতে এসে পৌঁছান তাঁরা। দিঘা থানা পুলিশের সহযোগিতায় যন্ত্র চালিত নৌকা থেকে ৬ জন মৎস্যজীবীকে উদ্ধার করা হয়। দিঘা থানার ওসি বুদ্ধদেব মাল বলেন, “যন্ত্রচালিত নৌকার ইঞ্জিন বিকল হয়ে যাওয়ায় নামখানা থেকে ভাসতে ভাসতে দিঘা এসে পৌঁছান মৎস্যজীবীরা। নৌকায় থাকা ৬ জন মৎসজীবিকে উদ্ধার করা হয়েছে। এখন তাঁরা সুস্থ রয়েছেন। দ্রুত তাদের বাড়ি পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।”

উদ্ধার হওয়া এক মৎস্যজীবীর কথায়, “মাঝ সমুদ্রে আচমকা নৌকার যন্ত্র বিকল হয়ে গেল৷ সকলে মিলে অনেক চেষ্টা করলাম৷ কিছুতেই ঠিক হল না৷ এদিকে সমুদ্রও গর্জন করছে৷ ফলে তখন ভরসা সমুদ্রের ঢেউয়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে কোনও একটা পাড়ে পৌঁছানো৷ তবে এভাবে দিঘায় পৌঁছে যাব ভাবিনি৷ যাই হোক, এযাত্রায় প্রাণে রক্ষা পেয়ে গেলাম৷ তবে এই অভিজ্ঞতা কখনও ভুলব না৷’’