জাতীয় সড়কে ওত পেতে রয়েছে মৃত্যু ফাঁদ, আতঙ্কে বাসিন্দারা

0
24
death trap

মালদহ: রাস্তা তো নয় যেন আস্ত পুকুর! মালদহ শহরের প্রাণকেন্দ্র রথবাড়ি চাটাইপট্টি এলাকা দিয়ে বয়ে যাওয়া চার লেনের জাতীয় সড়কের একাংশের হালটা (death trap) এমনই ৷ যার দরুন, প্রায় দিনই দুর্ঘটনা ঘটছে। জখম হচ্ছেন আট থেকে আশি। ঘটনার প্রতিবাদে রাস্তা অবরোধ থেকে ঘেরাও, সব কিছুই করেছেন এলাকার সাধারণ মানুষ থেকে ব্যবসায়ীরা৷ কিন্তু রাস্তার বিশেষ হাল ফেরেনি৷ অভিযোগ, জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের গাফিলতিতেই হচ্ছে না রাস্তা সংস্কারের কাজ৷

ফলে মালদহ শহরের রথবাড়ি এলাকার চার লেনের ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক দিনকে দিন রীতিমতো ভয়ানক (death trap) হয়ে উঠেছে। টোটো থেকে বাস, লরি যেকোনও ধরণের যানবাহন রীতিমতো ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। এক হাঁটু জলকাদা পেরিয়ে জাতীয় সড়ক দিয়ে যেতে কালঘাম ছুটছে সাধারণ মানুষেরও।

- Advertisement -

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ , দীর্ঘদিন ধরেই ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের একদিকের অংশ সামান্য বৃষ্টিতে ডুবে থাকছে। মাঝেমধ্যেই দুর্ঘটনা ঘটছে। যতদিন পর্যন্ত দুর্ঘটনায় কারও মৃত্যু না হবে,  ততদিন ঘুম ভাঙবে না জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের। একই সঙ্গে বাসিন্দাদের বক্তব্য, রাস্তা সংস্কারের বিষয়ে জেলা প্রশাসন এবং ইংরেজবাজার পুরসভা কর্তৃপক্ষকেও বারে বারে জানানো হয়েছে৷ কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না৷

ইংরেজবাজার পুরসভার চেয়ারম্যান কৃষ্ণেন্দু চৌধুরী বলেন, ‘‘ওই এলাকাটি সম্পূর্ণ তদারকি করে এনএইচএআই কর্তৃপক্ষ। ফলে এখানে পুরসভার কিছু করার নেই। তবে আমরা চাইব দ্রুত যেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সড়ক সংস্কার এবং জল জমার (death trap) বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখে।’’ ইংরেজবাজারের বিধায়ক শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরী জানিয়েছেন, এই সমস্যার বিষয়ে জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করা হবে। তবে রাস্তার দায়িত্বে যারা, সেই জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের কারও অবশ্য কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি৷

আরও পড়ুন: মন্ত্রিসভায় রদবদলের ওপর ভাবমূর্তি নির্ভর করে না, দাবি মুকুলের