28 C
Kolkata
Sunday, September 19, 2021
Home Uncategorized কোভিড রোগীর কোন স্টেজ বেশি ভয়ঙ্কর রুপ ধারণ করে

কোভিড রোগীর কোন স্টেজ বেশি ভয়ঙ্কর রুপ ধারণ করে

খাসখবর ডেস্ক: কোভিড-১৯ গত বছরের থেকে এবছরে আরও বেশি ভয়ঙ্কর। দিন দিন সারা বিশ্বে এই ভাইরাস মহামারির আকার ধারণ করেছে। দ্বিতীয় ঢেউতে করোনার উপসর্গ নানা রকম আছে। দ্বিতীয় ঢেউতে আরও বেশি করে দেখা দিয়েছে আগের চেনা কিছু উপসর্গও। সামান্য জ্বর, কাশি, মাথা ব্যথা হলে অত ভয় পাচ্ছেননা চিকিৎসকরা তবে একটু সাবধানে থাকলে আর ঠিক করে পথ্য আর ওষুধ নিলে করোনাকে হারানো যাবে।

- Advertisement -

তবে করোনাতে এমন কিছু উপসর্গও দেখা দিচ্ছে, যা যদি একবার আপনার নজরে পড়ে তাহলে এক মুহূর্তও সময় নষ্ট করা উচিত নয়। যেমন ধরুণ যাদের হঠাৎ করে পেটে সমস্যা হয় আর খুব দ্রুত সেই রোগীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে দেখা গিয়েছে তাহলে সেই রোগীকে তড়িঘড়ি চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া উচিত। করোনার আরও একটি উপসর্গ হল ডায়েরিয়া এবং বমিভাব হলে। এরজন্য সাবধান হতে হবে।

আরও পড়ুন-দলবিরোধী কাজের অভিযোগে একযোগে ৫ নেতাকে বহিষ্কার তৃণমূলের

- Advertisement -

তবে প্রতিদিনই দেখছি করোনা বাড়বাড়ন্তে আজ বহু হাসপাতালে বেড নেই, অক্সিজেন নেই, রক্তেত অভাব। তবে রোগীর কোভিড ধরা পড়লে প্যানিক না হয়ে বাড়িতেই রেখে চিকিৎসা শুরু করান। এমনিতে কোভিড রোগীকে একা ১৪ দিনের নিভৃতবাসে থাকতে হয়। তবে কোভিড রোগীর আক্রান্ত হওয়ার প্রথম ৫-১০ দিনে অবস্থা বেশ খারাপ হয়। এই সময় বেশ সতর্কতা অবলম্বন করতে হয়। এই সময় রোগীর শরীরে নানান জটিলতার সৃষ্টি হতে পারে।

কোভিডে আক্রান্ত হওয়া এবং সুস্থ হওয়ার এই ১৪ দিনের প্রক্রিয়াকে কোভিড বিশেষজ্ঞরা তিনটি পর্যায়ে ভাগ করছেন। প্রথম স্টেজ ১-৪ দিন, দ্বিতীয় স্টেজ, ৫-১০ দিন এবং তৃতীয় স্টেজ ১১-১৪ দিন। তবে প্রতিটি রোগীর একই লক্ষণ হবে তা কিন্তু নয়। একেক জন রোগীর উপসর্গ নানান রকম হতে পারে।

কোভিডরোগীকে হাসপাতালে ভরতি করার প্রয়োজন হতে পারে কি না। শরীরে অক্সিজেনের স্তরটি নামতে শুরু করে, আচমকা প্রচণ্ড জ্বর, জ্বরের ঘোরে প্রলাপ, অ্যান্টিপাইরেটিক, শ্বাসকষ্ট, চরম অস্বস্তি, ক্লান্তি ইত্যাদি প্রকট হতে পারে। উপসর্গগুলি থেকেই স্পষ্ট হয়, এটা সংক্রমণের দ্বিতীয় পর্যায়।

- Advertisement -

আরও পড়ুন-‘ওঁর সুগার হাই, ওষুধ খেতে হয়’, জেলের বাইরে শোভনের জন্য কাঁদলেন বৈশাখী

করোনা আক্রান্তকে বাড়িতেই চিকিৎসা করাচ্ছেন সেই সময় রোগীর লক্ষণগুলি দেখে চিকিত্‍সকের পরামর্শ নিয়ে বাড়িতেই রোগীর অক্সিজেন থেরাপি, ওষুধের ব্যবহার আর খাদ্যাভাসের ব্যবস্থা করা যেতে পারে। তবে ৬-৭ দিনেত মাথায় যদি সেই রোগীর সংক্রমণের পরিমাণ বোঝেন বেশ গুরুতর। তাহলে তৎক্ষণাৎ সেই রোগীকে হাসপাতালে ভরতি এবং সঠিক চিকিৎসার প্রয়োজন।

প্রথম স্টেজে সেভাবে করোনার লক্ষণ অনুভূত হয়না। তবে এই রোগের র দ্বিতীয় স্টেজের শুরুতে ৬-৭ দিনের কিছু রোগীর ক্ষেত্রে প্রতিরোধ ব্যবস্থা অত্যধিক উদ্দীপিত হয় এবং সংক্রমণ নির্মূল করার জন্য প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়। তবে এই অ্যান্টিবডি তৈরির সময়ে শরীরে জ্বালা-যন্ত্রণার সৃষ্টি হতে পারে। এই সময়টা আসল শুরু হয় করোনার সাথে যুদ্ধ করার। প্রথম সপ্তাহের শেষ দিকে অনেকটাই অসুস্থতা সারিয়ে ওঠে আবার অনেকের খারাপ হতে পারে। তবে রোগীর যতক্ষণ না ঠিকমতো চিকিত্‍সা পরিষেবা মিলছে, ততক্ষণ শ্বাসকষ্ট হলে সেই রোগীকে বাড়িতেই প্রোনিং করানো যেতে পারে। এই প্রোনিং অক্সিজেন স্তর বাড়াতে সাহায্য করে এবং রোগী সহজে শ্বাস নিতে পারেন।

- Advertisement -

সপ্তাহের সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ

এবার নতুন ভাবে হাজির সিদ্ধার্থ মিঠাই

অর্পিতা দাস: জি বাংলার মিঠাই ধারাবাহিকে একের পর এক চমক। ইতিমধ্যেই দর্শকেরা দেখে ফেলেছেন সিদ্ধার্থ মিঠাই এর নতুন লুক, এবং তাদের রোমান্টিক নাচ। এবার...

নুসরতের ছেলের নাম ঈশান জাহান দাশগুপ্ত- যশ‌ই নুসরতের ছেলের বাবা

অর্পিতা দাস: অবশেষে একটি বার্থ সার্টিফিকেট দিল সম্পর্কের আসল নাম। নুসরত জাহানের পুত্রসন্তানের বার্থ সার্টিফিকেটে বাবার নামের জায়গায় স্পষ্ট লেখা যশ দাশগুপ্তর আসল নাম। এতদিন...

নুসরতকে নতুন চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন নিখিল

অর্পিতা দাস: কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি নয় বরং এবার একে অপরকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ছেন নিখিল জৈন এবং নুসরত জাহান। প্রথমবার ক্যামেরার সামনে ধরা দিলেন নিখিল জৈন। এবার...

‘ঈশান আমার স্ট্রেস বাস্টার’- নুসরত পুত্রকে নিয়ে একথা জানালেন যশ

অর্পিতা দাস: শিলাদিত্য মৌলিকের চিনেবাদামের শুটিংয়ে ব্যস্ত অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত,তবে কিছুদিন আগেই সাংসদ অভিনেত্রী নুসরত জাহান এর সঙ্গে সদ্যোজাত ঈশানের বার্থ সার্টিফিকেট এর ব্যাপারে...

খবর এই মুহূর্তে

‘আজ ভবানীপুর জিতবে, কাল ভারত জিতবে’ প্রচারে নেমেই ঝোড় ব্যাটিং অভিষেকের

কলকাতা: ২১-এর নির্বাচনের মতই ভবানীপুর উপ নির্বাচনকে ঘিরে টানটান উত্তেজনা তৈরি হয়েছে বাংলায়। তৃণমূল সুপ্রিমো তথা মমতা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের কেন্দ্রে জয় নিয়ে আশাবাদী।...

গালিবের হাত ধরেই সাহিত্য অ্যাকাডেমি পুরস্কার পাচ্ছেন বিশিষ্ট সাহিত্যিক পুষ্পিত মুখোপাধ্যায়

খাসখবর ডেস্ক: মির্জা গালিবের চিঠি থেকেই বিভিন্ন উর্দু সাহিত্যের অনুবাদ করেছেন সাহিত্যিক পুষ্পিত মুখোপাধ্যায়। কয়েক বছর আগেই অনুবাদ সাহিত্যের জন্য বাংলা অ্যাকাডেমি পুরস্কার পেয়েছিলেন...

মমতাই পথ-প্রদর্শক, ঘুরিয়ে মানল বিজেপি: মধ্যপ্রদেশে চালু হচ্ছে দুয়ারে রেশন

ভূপাল: সাধারণের সুবিধার জন্য এবার বাংলার ঘরেতেই পৌঁছে যাচ্ছে রেশন সামগ্রী। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৃতীয়বার ক্ষমতায় এসে ঘোষণা করেছিলেন তাঁর পাইলট প্রজেক্টের কথা। মুখ্যমন্ত্রীর...

‘আজীবন মন্ত্রী থাকতে চেয়েছিলেন’ দলবদল নিয়ে বাবুলকে আক্রমণ অনুপমের

কলকাতা: শনিবার মোদী-শাহের ঘনিষ্ঠ বাবুল সুপ্রিয় তৃণমূলে যোগ দিতে স্বভাবতই মুখের হাসি আরও চওড়া হয়েছে তৃণমূলের অলিখিত ‘সেকেন্ড ম্যান’ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের৷ ভবানীপুরের উপ নির্বাচনে...