বেতার শ্রোতা প্রেমীদের এক সুতোয় বাঁধতে মিলনমেলা উৎসবে মেতে উঠলেন ‘বেতার বন্ধন’

0
33

খাস ডেস্ক : কোভিড বিপর্যয়ে যখন আকাশবাণী বেতারের অনুষ্ঠান অনিয়মিত পড়ে তখন শ্রোতাদের ভালোলাগার কথা মাথায় রেখে সেই কোভিড পরিস্থিতিতে বেতার বন্ধন পরিবার আকাশবাণীর সঞ্চালকদের নিয়ে নিজ উদ্যোগে শুরু করেন ‘কথায় কথায়’র মতো বিনোদন মূলক বিভিন্ন অনুষ্ঠান যা সেই সময় ঘর বন্দী বেতার প্রেমী শ্রোতাদের মধ্যে ব্যপক আলোড়ন সৃষ্টি করে । সময় সভ্যতার চাকায় যতই বেগ আনুক না কেন, বাংলার মানুষের আবেগের যায়গায় বেতার একটি মুক্ত বাতাসে নিঃশ্বাসের মতো। সভ্যতার রঙ্গিন প্রলেপের এই সময়ে ‘বেতার’ নামক শব্দটা ক্রমশ অপরিচিত হয়ে ওঠা বর্তমান প্রজন্মের কাছে বেতারের ঐতিহ্য তুলে ধরতে, হাওড়ায় এক আলোকিত উৎসবের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হলো বেতার-শ্রোতাপ্রেমীদের সংগঠন ‘বেতার বন্ধন’ এর বার্ষিক মিলনমেলা উৎসব-২০২২।

গত ৬ই মার্চ হাওরার আন্দুর রোডের বকুলতলার থানামাথুয়া মডেল হাই স্কুলের প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয় বার্ষিক মিলনমেলা -২০২২ অনুষ্ঠান। এদিন উপস্থিত দের মধ্যে ছিল, রাষ্ট্রপতি পুরস্কার প্রাপ্ত শিক্ষক শ্রী মঙ্গল প্রসাদ মাইতি , থানামাকুয়া মডেল হাই স্কুল প্রধান শিক্ষক শ্রী প্রবাল নষ্কর , বিশিষ্ট বাচিকশিল্পী শ্রীমতী কথাকলি চ্যাটার্জী ও শ্রীমতী এমিলি ব্যানার্জি, আকাশবাণীর সঞ্চালিকা শ্রীমতী অয়ন্তিকা ঘোষ , শ্রীমতী স্মিতা গুপ্ত বিশ্বাস , শ্রী বরুন দাস মহাশয়, শ্রী অমিতা ব্যনাজী মহাশয়, শ্রী অরিজিৎ গাঙ্গুলী মহাশয়, ‘সব খবর’ প্রতিনিধি সাংবাদিক সহ বিশিষ্ট সাহিত্যিক, প্রাবন্ধিক শ্রী সৌগত রাণা কবিয়াল মহাশয় সহ প্রমুখ বিশিষ্ট ব্যক্তিগন।

- Advertisement -

২০১১ সালের ৮ই জানুয়ারী আলিপুর চিড়িয়াখানায় এক শান্ত বিকেলে আড্ডার ছলে বেতার শ্রোতাপ্রেমী একদল সমমনা সৃষ্টিশীল মানুষ শ্রী অনিমেষ ভট্টাচার্য, শ্রী অজিত কুমার দে,শ্রী দিপক কুমার তুং, শ্রী দেবরাজ গায়েন, শ্রী বাবলু কুমার সিনহা- সহ প্রায় পঁচিশ জনের উপস্থিতিতে বেতার বন্ধন পরিবারের পথ চলার শুরু হয়। তারপর থেকে ধারাবাহিকভাবে সংগঠনটি বিভিন্ন সাংস্কৃতিক ও সামাজিক অনুষ্ঠান আয়োজন সহ রেডিও শোনার প্রতি নতুন প্রজন্মের শ্রোতাদের উৎসাহ প্রদান, হলদিয়ায় বিশ্ব বেতার দিবসে দুঃস্থ বেতার প্রেমী শ্রোতাদের রেডিও বিতরণ, দক্ষিণেশ্বর অসহায় দুস্থ শিশুদের শিক্ষা সামগ্ৰী প্রদান, বীরভূমে দরিদ্রদের মাঝে বস্ত্র বিতরন, কোভিড সময়ে সামাজিক বিপর্যয়ে বিপর্যস্ত বেতার শ্রোতাদের আর্থিক সহায়তা প্রদান, আমতায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক ও মানবিক কর্মকাণ্ডে ‘বেতার বন্ধন’ পরিবার তাদের শ্রোতা ফোরামের সদস্যদের সহায়তায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে।

সময় সভ্যতার চাকায় যতই বেগ আনুক না কেন, বাংলার মানুষের আবেগের যায়গায় বেতার একটি মুক্ত বাতাসে নিঃশ্বাসের মতন। আগামী প্রজন্মের কাছে বেতারের ঐতিহ্যগত আবেগকে তুলে ধরার গুরু দায়িত্ব নিয়ে চলেছে ‘বেতার বন্ধন’। আশা করি তাঁরা তাদের কাজে, তাদের উদ্দেশ্যে সফল হবে।