সৌরভের উদ্যোগে ইস্টবেঙ্গলে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, মিটতে চলেছে ইনভেস্টর সমস্যা

0
128
sourav-ganguly-will-help-east-bengal-to-get-sponsor discuss with CM Mamata Banerjee

কলকাতা: পরপর দুই মরশুমে আইএসএলে ভরাডুবি অবস্থা ছিল ইস্টবেঙ্গলের। গত দুই মরশুম ধরে আইএসএলে ইস্টবেঙ্গলের (East Bengal) ইনভেস্টর নিয়ে সমস্যা ছিলই। সম্পর্ক শেষ হয়েছে ইনভেস্টর সংস্থা শ্রী সিমেন্টের সঙ্গেও। এরই মধ্যে প্রাক্তন এটিকে কর্তা সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ইস্টবেঙ্গলের সাহায্যে এগিয়ে আসছেন। মনে করা হচ্ছে, ইস্টবেঙ্গলের বিনিয়োগকারী নির্ধারণে সাহায্য করতে পারেন মহারাজ। সোশ্যাল মিডিয়ায় এমনও শোনা যাচ্ছে যে, সৌরভের সৌজন্যে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড জুড়তে পারে ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে।

এর আগে সিএবি -তে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন লাল-হলুদ শীর্ষকর্তা দেবব্রত সরকার। দেবব্রত সরকার ছাড়াও লাল-হলুদ কর্তা সদানন্দ মুখোপাধ্যায়ও সিএবিতে গিয়েছিলেন। ইস্টবেঙ্গল কর্তাদের সঙ্গে ক্লাব হাউসের তিন তলায় বসে আলোচনায় করেন সৌরভ। শুধু আলোচনা করেই থেমে থাকেননি দাদা, জনপ্রিয় ফুটবল ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে বাংলার ফুটবলে আনতে উদ্যোগী সৌরভ।

- Advertisement -

আরও পড়ুন: “সিদ্ধান্ত নিলে নিজেই জানাব”, রাজনীতিতে যোগদান নিয়ে বললেন Kapil Dev

জানা গিয়েছিল, ইস্টবেঙ্গলের (East Bengal) নয়া ইনভেস্টর হতে পারে এক বাংলাদেশী সংস্থা। চুক্তি পাকা করতে পদ্মাপারে পাড়িও দিয়েছিলেন ইস্টবেঙ্গল কর্তারা। কিন্তু শেষমেশ তা হয়নি। চুক্তির বিষয়ে লাল হলুদ কর্তাদের সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন সৌরভ। উল্লেখ্য, এর আগে বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথোপকথন করতে নব্বানে গিয়েছিলেন। তখনও ইস্টবেঙ্গলের ইনভেস্টর সমস্যা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করেন সৌরভ। ২০২০ সালের আইএসএলের আগে মুখ্যমন্ত্রীর হাত ধরেই শ্রী সিমেন্ট ইনভেস্টর হয়ে এসেছিল লাল-হলুদে।